পাতা:কোরাণ শরিফ - প্রথম ভাগ.pdf/১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোরাণ শরিফ । سو! আদমকে সমুদায় পদার্থের নাম শিখাইয়াছিলেন, পরে তৎসমুদায় পদার্থ দেবগণের নিকট উপস্থিত করিয়া বলিলেন “যদি তোমরা সত্যবাদী, তবে এই সকল দ্রব্যের নাম আমাকে জ্ঞাপন কর।” ৩১। দেবগণ বলিলেন “পবিত্ৰ তুমি ( হে ঈশ্বর, ) যাহা তুমি আমাদিগকে শিক্ষা দিয়াছ ত দ্ব্যতীত আমাদের কোন জ্ঞান নাই, নিশ্চয় তুমি জ্ঞাতা ও স্থবিজ্ঞাত।” ৩২। ঈশ্বর বলিলেন “হে আদম, তুমি ইহাদিগকে এই সকল বস্তুর নাম জ্ঞাপন কর;” অনন্তর যখন আদম তাহাদিগের নিকটে নাম সকল ব্যক্ত করিল তখন ঈশ্বর বলিলেন ... আমি তোমাদিগকে কি বলি নাই যে সত্যই আমি ভূমণ্ডল ও নভোমণ্ডলের গুপ্ত বিষয় জ্ঞাত আছি ও তোমর। প্রকাশ্যে যাহা করিতেছ এবং যাহা গুপ্ত রাথিতেছ তাহা অবগত হইতেছি ?” ৩৩ । যখন তামি দেবগণকে বলিলাম “তোমরা অাদমকে প্রণাম কর,” শয়তান ব্যতীত সকলে প্রণাম করিল, শয়তান অগ্রাহ করিল, অবাধ্য হইল ও ঈশ্বরদ্রোহী চষ্ট ল ৷ ৩৪ । আমি বলিলাম “হে অদিম, স্বর্গে তুমি সস্ত্রীক বাস করিতে থাক এবং তোমরা দুই জনে ইহার প্রচুর খাদ্য যথা ইচ্ছ। ভক্ষণ কর, কিন্তু এই বৃক্ষের নিকটে যাইওনা, গেলে পর তাপরাধী হইবে” । ৩৫ ৷ অনন্তর শয়তান তাহাদিগকে তথা হইতে বিচলিত করিল, তৎপর তাহারা যে সম্পদে ছিল তা হা হইতে নিষ্ক্রমিত হইল, আমি বলিলাম “তোমরা অধোগামী হও, তোমরা পরস্পরের শক্র, ভূমণ্ডলে তোমাদিগের বাসস্থান হইবে, ও কিছু কাল ফল ভোগ করিতে থাকিবে । ৩৬ । পরে আদম ঈশ্বরের নিকটে কয়েক কথা শিক্ষা করিল,* অনন্তর ঈশ্বর তাহার 黯 প্রসন্ন হইলেন ; নিশ্চয় নিনি

  • ঈশ্বর আদমের অন্তরে প্রকাশ কwিরছিলেন যে, এই ভাবে প্রার্থন কারও তাহ হইলে তোমাকে ক্ষমা করা যাইবে । )וזי,ס, (