পাতা:কৌত্তক বিলাস.djvu/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কৌত্তক বিলাস। ২৯ ব্রহ্মণে মোহুরুদান শূদ্রে মুদ্র পান । ছোট বড় সৰ্ব্ব জনে করয়ে কল্যাণ । অঙ্গবঙ্গ কলিঙ্গ দ্রাবিড় কাঞ্চি কাশী। সৰ্ব্বত্রের অধ্যাপক পত্র পায়ে আসি । মনো রম তা সবার করিয়া বিদায় । পরেতে কৌলিক করে কৃষ্ণচন্দ্র রায় । ভৃগু যজ্ঞ সম রাজা করে আয়োজন । মাসাবধি জ্ঞাতিজনে করান ভোজন । পরেতে আপনি । কৃষ্ণ উৎকৃষ্ণ ভাবিয়া। রাজা হয়ে বৈশে পিতৃ সিংহাস নে গিয়া পুত্ৰসম পালে প্রজ বিচারে পণ্ডিত। আপ নি পণ্ডিত পণ্ডিত সভাস্থিত ৷ বৰ্ব্বর সহিত রাজা না কহে কথন । শিষ্টের পালক ভূপ দুদুষ্টের শমন। গুণ বোদ্ধা অদ্বিতীয় এই বসুধরে। যজ্ঞ দান পূজা রাজা অবিরত করে ৷ শাসনে গো বnঘু জল পিয়ে এক ঠাই গুণের সাগর রাজা হেন আর নাই ৷ পাত্র মিত্র ভূত; গণে সবে বুদ্ধিমান নিৰ্ব্বোধ হইলে তার দণ্ড হয় প্রাণী কালিদাস বাণেশ্বর কবিচন্দ্র আর । ভারত অসিতনাথ পঞ্চরন্তু যার। পূৰ্ব্বে বিক্রমাদিত্য নবরতু যেন কৃষ্ণ চন্দ্রের পঞ্চরন্তু তাহার সমান। মহাসুখে মহারাজু সদ। করে বাস। পণ্ডিত হইলে পাশ্ব সদাই উল্লাস । নন। শাস্ত্র অধ্যয়ন হয় সৰ্ব্বক্ষণ । শাস্ত্র উক্তি বিন। কথা ন৷ কহে রাজন। গ্রামবাপি লোকে যশ সদা কাল গায় । বলয়ে এমন রাজা ন দেখি কোথায় । এইৰূপে কত কাল গত হয় পরে। আসিল পণ্ডিত এক নদীয়। ন রে।