পাতা:কৌত্তক বিলাস.djvu/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩২ কৌস্তুক বিলাস। . বিষাদ রাজন। আজ্ঞা দেহ এইক্ষণে জিনিব তাহারে। তোমার দাসের দাস আমারে কে পারে। রাজা বলে পাগলের প্রায় কহু কথা। কিসে তুমি জয়ী হবে খেয়ে মোর মাথ। গোপাল কহিছে রাজা বুদ্ধি বলবান । কি করে পণ্ডিতে বুদ্ধি সারদা সমান। শুনিয়া প্রশংসা রাজ করেন তাহার । তোমার সমান বন্ধ কে আছে আমার। সুখের সকলে ভোগী দুঃখে মাত্র তুমি বিন। মুল্যে তব স্থানে ক্রীত হই আমি। গোপাল কহিছে ভূপে ফিঙ্করে এমন । কহিছ বচন তুমি কিসের কারণ ৷ এই আমি চলিলাম জিনিতে পণ্ডিত । এর্থীন সংবাদ পাবে আসিব তুরিত। এতবলি গোপাল চলিল নিজবাস । দ্বি জ শ্যাম কহে পরে কেীত্তক বিলস । গোপালের পণ্ডিতের বাসায় গমন । ঘরেশিয়া চিন্তাকরি মনেতে রসাল। ধরিল স্থিজের বেশ সুৰেশ গোপাল ৷৷ গলে উপবীত মোট দীর্ঘ ফেট ভালে। পরিধান পট্টবাস করে কুমণ্ডলে। আর এক দাস ভাড় সংহতি লইয়া । চলিল তাহার মাথে তাপী চাপাইয়া। আপনি খাটের খুরা ভাঙ্গিনিজকরে শত বস্ত্র জড়াইল সেইগুন্থবিরে ৷ খটাঙ্গ পুরাণ কক্ষে করিয়ে যতনে । যাইল গোপাল তাড় দ্বিজ বিদ্যমানে । বসিয়া পণ্ডিত করেন তৈলমদন । হেনকলে গোপাল দিলেন দরশন। কহিল ভূপাল দিল মোরে পাঠাইয়ে ।