পাতা:ক্রমশ ফসিলের মত একটা শব্দ.pdf/২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মামুষের মাংসের গন্ধ, রক্তের রঙ মাকুবের মৃতদেহের পচাগন্ধকে ভীষণ ভয় পায় ব’লেই মাচুষ মর্গ থেকে মহাশ্মশানের দিকে কঁধি বদলাবদলি ক’রেও উধ্ব শ্বাসে ছুটতে থাকে, পথের দুধারের জীবজন্তু উড়ন্ত পাখপাখালি তখন তাদের দৃষ্টিতে নিঃশব্দ উপহাস স্কার ব্যঙ্গ মিশিয়ে দেয় – মাছুষের থেকে অনেক বেশি অকপট অকৃত্রিম ব’লেই মৃতদেহু দাছ করার কোনো ব্যৱস্থাই করেনি ওরা । প্রতিটি মানুষকেই কেন যেন অসংখ্যবার রাডব্যাঙ্ক থেকে ছুটতে ছুটতে ক্লাস্তভাবে কশাইখানায় মাংসের দোকানে একটু দাড়াতেই হয়, চুপিসারে মিলিয়ে নিতে হয় রক্তমাংসের অস্থগত রক্তমাংসকে – মামুষের মূল্য এমনই অস্বাভাবিকভাবে কমে যাচ্ছে যে শুধু অঙ্গপ্রত্যঙ্গই নয় তার আত্মাও হয়তো একদিন অম্ব অস্ত্যজ প্রাণীর প্রয়োজনে লাগতে পারে । তবু গাছগাছালি যে-দিব্য ভালোবাসার স্বল্প শরীরে , মাটি জল আকাশ বাতাসের বুকে নিম্প হ নীরবতায় ডুবে রয়েছে মেধাবী মামুব মাথাখুড়েও যেমন সে-শরীরে পৌছতে পারে না, তেমনই পৌছতে পারেন মাটিজল আকাশের স্রাণে ডুবে থেকেও পশু মাছ পাখি । তখন কি-এক রহস্তমশ্ন করুপীর মতে আঘাতের আকস্মিক আলোড়নে কোলে{ মুলে সকলের সব আকাঙ্গ তুবারের মতে

r স্ট্রর সুয়ে, ক’রে রr" ষায় க

"মারে গন্ধের ক্ষের রঙের অকল্পনীয় অভিন্নতার SBBDg DDD ttttBTDTBB BT kBDu