পাতা:খাদ্যতত্ত্ব.djvu/১০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভাতের যুস্, ডাইলের যুস্ సాహి লবণ ও শর্কর যোগ করিয়া ইহা মুদ্রউত্তাপে প্রায় অৰ্দ্ধ ঘণ্টা জাল দিৰে ও নাড়িবে । পথ্য করিবার সময়ে ইহার সহিত উষ্ণ দুগ্ধ মিশ্রিত করিয়৷ লওয়া যায় । সুস্থ ব্যক্তির পক্ষেও ইহ পুষ্টিকারক খাদ্য । ভাতের যুস অৰ্দ্ধ ছটাক চাউল উত্তমরূপে ধেী ত করিয়া এক সের ঈষদুষ্ণ জলে তিন ঘণ্টা ভিজাইয়া রাখিবে । পরে এই চাউল ও জল এক ঘণ্টা মৃদুউত্তাপে সিদ্ধ করিয়া কাপড়ে ছাকিয়া জল বা মাড় পাত্রে রাখিৰে । এই মাড়ে লবণ শর্কর বা লেবুর রস যোগ করিয়া রোগীকে গ্রহণ করিতে দিবে। আমেশা ও পেটের পীড়ার পক্ষে ভাতের যুস বিশেষ উপকারী । ডাইলের যুস মুগ ও মসুর ডাক্টলের যুস কবিরাজগণ ব্যবস্থা করিয়া থাকেন । ংসের সুরুয়ার সমকক্ষ না হইলেও ইহা উত্তম সুপাচ্য পথ্য। কিন্তু যেরূপ অল্প সময়ের মধ্যে, ইহা প্রস্তুত হয়, তাহাতে ঠহা লঘুপথ্য হইতে পারে না । অস্তুতঃ পাচ ঘণ্টা ডটিল সিদ্ধ হওয়া আবশু্যক | একপোয়! ডাইল কিঞ্চিৎ সোড মিশ্রি ৩ জলে এক ঘণ্টা ভিজাষ্টয়া ধুইয়া লইবে । নয় পোয়। শীতল জলে মৃদু উত্তাপে ইহা সিদ্ধ করিতে হইবে । সিদ্ধের সময় ইহার সহিত ২টী পেয়াজ, ৪ গণ্ডী গোলমরিচ ও কিঞ্চিং লবণ দিবে। এক পোয়। জল থাকিতে উহ নাবাইয়া ছাকিয়া লইবে । কিঞ্চিৎ শর্করা ও লেবুর রস যোগ করিলে সুস্বাদু হয় । ইউরোপীয়গণের জন্ত ডাইলের যুস প্রস্তুত করিবার সময়ে মাংস হইতে পরিত্যক্ত ৪৫ খান হাড়ের টুকরা যোগ করিয়া লওয়া হয় । ইহাতে ইহার স্বস্বাদ বুদ্ধি হয় । ডিম্ব ডিম্বের হরিদ্র পদার্থ আলোড়ন করিয়া উষ্ণ চার সহিত মিশ্রিত করিবে । এই চা অতিশয় লঘুপথ্য ও বলকারী। এইরূপে ডিম্বের শুভ্র ও