পাতা:খাদ্যতত্ত্ব.djvu/৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ফল 8ఫి ভাবের জল শ্বেতসার ও শর্কর ২-৪ প্রোটিড় > *8. তৈল কিঞ্চিৎ ভস্ম o" وان রাসায়নিক খাদ্যগুণ বিচার করিলে নারিকেল ফলের রাজা । কিন্তু ইহাতে অত্যধিক পরিমাণে তৈল থাকায় ইহা অত্যস্ত গুরুপাচ্য । পরিপাক হইলে নারিকেল কণ্ড লিভার তৈলের মত উপকাৰী । নারিকেলের কুগ্ধ বা নারিকেল কোরা মিশ্রিত ডাইল ও তরকারী অতি সুস্বাছ হয় । মুড়ি ও নারিকেল ভক্ষণ অমরোগের পক্ষে উপকারী বলিয়। কথিত আছে। নারিকেল অপেক্ষা নারিকেল দুগ্ধ কিঞ্চিৎ অধিক লঘুপাচ্য বলিয়া বিবেচিত হয়। নারিকেলের লাড়, অতিশয় দুষ্পাচ্য । ভাবের জলও উত্তম পানীয় । রাসায়নিক খাদ্যগুণেও ইহা হীন নহে । কিন্তু, ইঙ্গ অ ত্যন্ত শীতল । সুস্থ শরীরে মধ্যাঙ্কুে, আহারের এক ঘণ্টা পরে, পান করিলে ইহা বিশেষ ফলকারী । ডাবের জল অম্বলের রোগীর পক্ষেও বাব স্থা করা যায় । সরস লোণ ভূমিতে উত্তম নারিকেল জন্মে। উচ্চ শুষ্ক জমিতে নারিকেল জন্মে না ! নারিকেল দুগ্ধ দ্বারা ডাল, তরকারী ও মাংস অতি সুস্বাদ হইয়া থাকে। রন্ধন শেষ হইলে নারিকেল দুগ্ধ যোগ করিতে হয় । নরিকেল কোরাইয়া কোন পাত্রে রাখিবে । একটা নারিকেলে এক পোয়া ফুটন্ত জল ঢালিয়া দিয়া পাত্র ঢাকিয়? রাখিতে হয় । শীতল হইলে ছাকিয়া লইতে হয় ] কাটাল কঁাটালের রাসায়নিক পরীক্ষা সম্ভবতঃ হয় নাই । সাধারণতঃ লোকে ইহাকে পুষ্টিকারক বলে, কিন্তু ইহা অতিশয় গুরুপাচ্য । আঁশ ফেলিয়৷ ইহার রস গ্রহণ করা যাইতে পারে । কাটাল অনেক লোকের নিকট প্রিয়। কাটাল বঙ্গদেশের সর্বত্র প্রচুর পরিমাণে জন্মে । - - 8