পাতা:গল্পগুচ্ছ (চতুর্থ খণ্ড).pdf/২৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Soos গল্পগুচ্ছ আমি ভাবলাম এই তো আমি কোনো উপকরণ না নিয়ে কেবল গল্প লিখে... নিজেকে নিজে সাখী করতে পারি। শিলাইদা, ২৭ জন ১৮৯৪ — রবীন্দ্রনাথ। ছিন্নপত্র ছোটো গল্প রচনার প্রসঙ্গে রবিবাব বলিলেন—“আমি প্রথমে কেবল কবিতাই লিখতুম, গল্পে-টলেপ বড়ো হাত দিই নাই। মাঝে একদিন বাবা ডেকে বললেন, তোমাকে জমিদারির বিষয়কম দেখতে হবে।’ আমি তো অবাক ; আমি কবি মানষে, পদ্য-টদ্য লিখি, আমি এ সবের কী বকি ? কিন্তু বাবা বললেন, তা হবে না ; তোমাকে এ কাজ করতে হবে। কী করি ? বাবার হকুম, কাজেই বেরতে হল। এই জমিদারি দেখা উপলক্ষে নানা রকমের লোকের সঙ্গে মেশার সযোগ হয় এবং এই থেকেই আমার গল্প লেখারও শরা হয়।” এই কথা প্রসঙ্গে রবিবাব তাঁহার দই-একটি গল্প-রচনার ক্ষুদ্র ইতিহাস দিলেন। কোনো-না-কোনো বাস্তব ঘটনা বা বাস্তব চিত্র হইতে তাঁহার অনেক গল্পেরই উৎপত্তি। [ ২ মে ১৯o৯ ] —জিতেন্দ্রলাল বন্দ্যোপাধ্যায়। শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্রনাথ। সপ্রভাত, ভাদ্র ১৩১৬ সাধনা পত্রিকায় অধিকাংশ লেখা আমাকে লিখিতে হইত। ... এই সময়েই বিষয়কমের ভার আমার প্রতি অপিত হওয়াতে সবাদাই আমাকে জলপথে ও পথলপথে পল্লীগ্রামে ভ্রমণ করিতে হইত— কতকটা সেই অভিজ্ঞতার উৎসাহে আমাকে ছোটোগল্প-রচনায় প্রবত্ত করিয়াছিল। সাধনা বাহির হইবার পবেই হিতবাদী কাগজের জন্ম হয়। ... সেই পত্রে প্রতি সপ্তাহেই আমি ছোটোগলপ সমালোচনা ও সাহিত্যপ্রবন্ধ লিখিতাম। আমার ছোটোগল্প লেখার সত্রপাত ঐখানেই। ছয় সপ্তাহকাল লিখিয়াছিলাম। সাধনা চারি বৎসর চলিয়াছিল। বন্ধ হওয়ার কিছুদিন পরে এক বৎসর ভারতীর সম্পাদক ছিলাম, এই উপলক্ষ্যেও গল্প ও অন্যান্য প্রবন্ধ কতকগুলি লিখিতে হয়। বোলপরে, ২৮ ভাদ্র ১৩১৭ \ —রবীন্দ্রনাথ, পন্মিনীমোহন নিয়োগীকে লিখিত পত্র। আত্মপরিচয় একটা কথা মনে রেখো, গল্প ফোটোগ্রাফ নয়। যা দেখেছি, যা জেনেছি, তা যতক্ষণ না মরে গিয়ে ভূত হয়, একটার সঙ্গে আর-একটা মিশে গিয়ে পাঁচটায় মিলে পণ্যত্ব পায়, ততক্ষণ গলেপ তাদের পথান হয় না। ৭ আশিবন ১৩৩৮ — রবীন্দ্রনাথ। চিঠিপত্র ১ বর্ষার সময় খালটা থাকত জলে পণ। শকিনোর দিনে লোক চলত তার উপর निम्न । uी नाहब्र झिल ७कल्ले शझे, नथाप्न बाध्य छनष्ठा। माछणान्न घब्र रथळक प्नाकाणरग्नब जौना नवउ छाप्ना नाशङ । नथाब्र जामाब्र जौबमवाया ख्णि जनछा BB BB Du uS BB DDS BBB BBD DDBB DD DD DDS