পাতা:গল্পস্বল্প.djvu/১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


( ७ ) ইহাতে কত কাজ হয়, কত গরীব দ্বীর উপকার করাযা, এমন সুযোগ যেন হারাস নে ? কিন্তু খানিক বাদেই আমি সেই টাকাটি দিয়া একটি মোমের পুতুল কিনিয়া ফেলিলাম। ಘ এখনি একজন ভিক্ষুক আমার কাছে ভিক্ষা চাহিতেআসিয়াছিল। আহা বেচার সমস্ত দিন কিছুই খায় নাই। আমি যদি সে টাকা হইতে তাহাকে কিছু পয়সাও দিতে পারিতাম ত তাহার কত খাবার হইত—কিন্তু আমি সে সুযোগ হারাইয়াছি।” এই বলিয়া বালিকা কঁাদ কঁাদ হইল। রমেশ আর থাকিতে পারিল না, অনুতপ্ত হৃদয়ে বলিল, “সুষমা, আমিও আজ একটি সুযোগ হারাইয়াছি ; আমি আজ মায়ের কাজ করিতে পারিতাম—তাহা করি নাই।” সুষম বলিল, “তবে দেখিতেছি আমরা দুজনেই সুযোগ হারাইয়াছি। কেবল সুরেন্দ্রই লাড় করিয়াছে।” ইহা শুনিয়া সুরেন্দ্র একটু লজ্জিত হইয়া বলিল, “সুষম, আমাকে ক্ষম কর। এখন আমি বুঝিতেছি আমিও সুযোগ হারাইয়াছি। আমি পিতাকে সন্তুষ্ট করিতে পারিতাম তাহ করি নাই, নিজের বিদ্যাশিক্ষায় সময় দিতে পারিতাম তাহা দিই নাই, আমি তোমাদের সকলের অপেক্ষা অধিক হারাইয়াছি।” সুরেন্দ্র অনুতপ্ত ইয়া ভবিষ্যতে সুযোগের সদ্ব্যবহার করিবে বলিয়া সঙ্কল্প করিল। সুষম নিজে মুযোগ হারাইয় এতক্ষণ যদিও বিষ হইয়া পড়িয়ছিল—কিন্তু অন্ত দুই জনকে তাহার কথা জ্ঞান লাভ করিত্বে দেখিয়া তাহারও সে কষ্ট ইধিকক্ষণ রছিল না। *, -