পাতা:গল্পস্বল্প.djvu/৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


( २७ ) 馨 এ পর্যন্ত সে কেবল গাছের ডাল পাতা লক্ষ্য করিয়া ঢ়িল ছুড়িত, কখনও জীবহত্যা করে নাই। সেই জন্য উহাদিগকে দেখিবামাত্র তাহার মুখ শুকাইয়া গেল। একজন বালক বলিল —“দীননাথ—এইবার তোমার সাহসের পরিচয়টা দেও, আজ কটা পার্থী মারিবে বলদেখি” ? দীন বলিতে যাইতেছিল—“আজ শরীরটা বড় ভাল নাই,— মা তাই কোথাও যেতে দেবেন না।” কিন্তু সে কথা কহিবার আগেই আর একজন উপহাস করিয়া কহিল—“দীমুসিংহ কটা পার্থী মারিবে—ত আর জিজ্ঞাসা করিতে ? অসংখ্য!” এই কথায় মহা হাস্য কোলাহল পড়িয়া গেল, দীন ইহাতে অত্যন্ত লজ্জিত এবং ব্যথিত হইয়া মনে মনে বলিল—“হ ভগবান—কেন তুমি আমাকে এমন দুৰ্ব্বল স্ত্রীলোকের প্রাণ দিয়া গড়িয়াছিলে? আমার কি বাস্তবিক একটুও পুরুষত্ব নাই ? প্রতি পদে পদে আমি সকলের নিকট উপহাসাম্পদ হইব ?* দীন নিজের দুর্বলতা জয় করিতে দৃঢ় সংকল্প করিল। হায়! পুরুষত্ব ও নিষ্ঠুরতার মধ্যে যে অনেক প্রভেদ তাহ সে বুঝিল না। দীন উত্তেজিতস্বরে বলিল—“কবে ছেলেবেলায় কি করিয়াছি—তার জ কি চিরকালই আমাকে ঠাট্টা করিবে ? তোমাদের সকলের আগেই আজ আমি পার্থী মারিব”— বালকের দীনর কথা শুনিয়া সন্তুষ্ট চিত্তে সকলে মিলিয়া পার্থী মারিতে যাত্রা করিল। প্রথমেই যে পার্থীটি দেখিতে পাইল— সেইটিকে দেখাইয়া একজন বাণক বলিল, “পলোয়ানজি, এই বার-এইবার”—. . t به اینکه