পাতা:গল্পস্বল্প.djvu/৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


( لاره ) শীর রক্ষার উপযোগ হুইবে অথচ পরিমাণে অধিক হইবে না। কিন্তু একমাত্র সত্ত্বকারী পদার্থ দ্বারা যদি জীবন ধারণ করিতে হয় তাহা হইলে এইনিয়ম রক্ষাহয়না, এবং তজ্জন্ত অল্প সময়ের মধ্যেই স্বাস্থ্য ভঙ্গ হইয়া শরীর দুৰ্ব্বল হইয়া পড়ে। এই বিশেষ কারণে মিশ্র আহার অর্থাৎ সত্ত্বকারী ও তৈল বা শ্বেতসার জাতীয় পদার্থমিশ্রিত আহার মন্থয্যের পুক্ষে বিশেষ উপযোগী ও স্বাস্থ্যকর। উক্ত তিনপ্রকারখাদ্যের মধ্যেই ধাতব পদার্থ ও জলপাওয়া যায়।* শরীরের পুষ্টির জন্য যাহ আবশ্বক তাহা মিশ্র আহারেই পাওয়া যায় ইহা তোমরা বুধিলে ; কখন কিরূপ আহার করিলে এই উদ্দেশ্য সাধিত হইতে পারে তাহ! এইবার দেখা যাউক । ভাক্তারের বলেন শিশুকাল অতিক্রম করিবার পর সাধারণত দিন রাত্রের মধ্যে নিয়মিত চারিবারের অধিক না খাওয়াই ভাল। চারি বারের দুইবার পূর্ণ আহার-দুইবার লঘু আহার। প্রত্যুষে উঠিয়া মুখ প্রক্ষালন করিয়া কিছু লঘু আহার করিয়া বেড়াইতে যাইবে ; কিম্বা যদি তাহাতে অসুবিধা হয় তবে বেড়ইয়া আসিয়া এই আহার করিবেঁ। ইয়োরোপীয়দিগের হিন্দুদিগের স্থায় আহারের বিচার নুই, স্বতরাং ইংরাজ ডাক্তারের এ সময়ে সাধারণতঃ মুরগীর কাচ বা অৰ্দ্ধসিদ্ধ ডিম দু একটি, দুই এক টুকর3াখনমিশ্রিত পাউরুটি এবং ইহার সহিত চ রুটি কোকো, কিম্বা দুগ্ধ পানের ব্যবস্থা দিয়া থাকেন। কেননা ডিম্ব একদিকে লঘু ও অপরদিকে পুষ্টকর

  • .

উপরে খাদ্যয়ম্বন্ধে যাহা কী হইল তাহা ভাক্তার ব্রজেন্দ্রনাথ বলোপ্য প্রশস্তৃতারতীর ভক্ষত্রব্য কর একা বন্ধু হইতে গৃহীত্ব।