পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/১৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রসময়ীর রসিকতা እ6 > সাহেব চুরুট মুখে বলিলেন—“হেল্লো মুখটিয়ার, টুমি হেখানে খি খড়িটেছে ?” ক্ষেত্রবাবু বলিলেন—“হুজুর, এই আমার শ্বশুরবাড়ী।” “ইহা টোমার শ্বশুরবাড়ী আছে ? উটম, হামি টোমাড় শ্বশুড়বাড়ী সার্চ খড়িবে।” “কেন হুজুর ?” “হেখানে বোমা টৈয়াড়ি হয় থিন ডেখিবে। ইহা সার্চওয়ারেন্ট আছে ”—বলিয়া সাহেব সার্চ-ওয়ারেন্ট খানি ক্ষেত্রবাবুর হস্তে প্রদান করিলেন । ক্ষেত্রবাবু সেখানি উন্টিয়া পাণ্টিয়া দেখিয়া, সাহেবের হাতে ফিরাইয়া দিলেন। বলিলেন—“হুজুর মালেক—যা ইচ্ছা করিতে পারেন।” সাহেব বলিলেন—“ষ্ট্রীলোক ঘনকে লুকাইয়া রাখ।” পুলিশ গৃহমধ্যে প্রবেশ করিল। স্ত্রীলোকগণের মধ্যে কেবল বিনোদিনী। তিনি পুলিশের ভয়ে কোথাও লুকাইবার প্রয়োজন দেখিলেন না । হরিনামের মালাটি হাতে করিয়া উঠানে তুলসীতলায় বসিয়া রহিলেন। খানাতল্লাসী আরম্ভ হইল। বন্দুক, বারুদ, ডিনামাইট, বোমা, বর্তমান রণনীতি, যুগান্তর, গীত, দেশের কথা, রিভিউ অব রিভিউজ, প্রভৃতি কিছুই বাহির হইল না । বাহির হইল হিন্দু সৎকৰ্ম্মমালা, গুপ্ত প্রেস পঞ্জিকা, কাশীদাসী মহাভারত এবং একখানি বটতলার ছেড়া উপস্বাস। ক্ষুদ্র বা বৃহৎ কোনও দেশনায়কের কোনও ছবি বাহির হইল না —বাহির হইল কেবল খানকতক কালীঘাটের পট এবং একখানা আর্ট ষ্টুডিওর গণেশ মূৰ্ত্তি। জমিদারের খানকতক পুরাতন দাখিলা এবং একটা