পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/১৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদরিণী እbሥ® একজন ফিরিয়া আসিয়া ৰলিল—“বীরপুরের উমাচরণ লাহিড়ীর একটি মেনা-হাতী আছে—এখনও বাচ্ছা—বিক্রী করবে, কিন্তু বিস্তর দাম চায় ।” “কত ?” “ছ হাজার টাকা ।” “খুব বাচ্ছা ?” “নী—সওয়ারি দিতে পারবে ।” “কুছ পরোয়া নেই। তাই কিনব । এখনি তুমি যাও। কাল সকালেই যেন হাতী আসে। লাহিড়ী মশায়কে আমার নমস্কার জানিয়ে বোলো, হাতীর সঙ্গে যেন কোনও বিশ্বাসী কৰ্ম্মচারী পাঠিয়ে দেন, হাতী দিয়ে টাকা নিয়ে যাবে I* পরদিন বেলা সাতটার সময় হস্তিনী আসিল । তাহার নাম— আদরিণী। লাহিড়ী মহাশয়ের কৰ্ম্মচারী-রীতিমত ষ্ট্যাম্প-কাগজে রসিদ tলখিয়া দিয়া দুই হাজার টাকা লইয়া প্রস্থান করিল। বাড়ীতে হাতী আসিবামাত্র পাড়ার তাৰৎ বালক বালিকা আসিয়া বৈঠকখানার উঠানে ভিড় করিয়া দাড়াইল । দুই এক জন অশিষ্ট বালক স্থর করিয়া বলিতে লাগিল—“হাতী, তোর গোদা পায়ে নাতি।” বাড়ীর বালকেরা ইহাতে অত্যন্ত ক্রুদ্ধ হইয়া উঠিল এবং অপমান করিয়া তাহাদিগকে বহিষ্কৃত করিয়া দিল । হস্তিনী গিয়া অন্তঃপুরদ্বারের নিকট দাড়াইল। মুখুর্য্যে মহাশয় বিপত্নীক —র্তাহার জ্যেষ্ঠ পুত্রবধু একটি ঘটতে জল লইয়া সভয়পদক্ষেপে বাহির হইয়া আসিলেন। কম্পিত হস্তে তাহার পদচতুষ্টয়ে সেই জল একটু একটু ঢালিয়া দিলেন। মাহুতের ইঙ্গিতানুসারে আদরিণী • তখন জাম্ব পাতিয়া বসিল। বড় বধু তৈল ও সিন্দুর তাহার ললাট