পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२२ . গল্পাঞ্জলি এই নূতন সম্বোধনে বিপিনবাবুর মুখ আবার অপ্রসন্ন হইল। বিদ্রুপের স্বরে বলিলেন—“টাকা সুদে আসলে কত দাড়িয়েছে, হিসেব করেছ ?” “করেছি।” “কত ?” “প্রায় পয়তাল্লিশ হাজার ” “তুমি আমাকে শাইলক বলে গাল দিয়েছ। আমি যে শাইলক নষ্ট তার প্রমাণ আমি তোমায় দিচ্ছি। তোমার বাড়ী তিন খানার এখন বাজার দাম কত হতে পারে মনে কর ?” “এ পাচ বছরে কলকাতায় বাড়ার দাম প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে গেছে । আমার তিনখানা বাড়ীর দাম এখন অন্ততঃ পঞ্চাশ হাজার টাকা ।” “সম্ভবতঃ আরও বেশী । দলিলে যে পাঁচবছরের মেয়াদ ছিল, তা ..இன் গেছে। এখন তুমি লাখ টাকা দিলেও, ও বাড়ী তিনখান। তোমায় ফিরে দিতে আমি আইনতঃ বাধ্য নই ত ?”

  • ভ ন ও ** -

“আচ্ছ । তুমি আমার পঁয়তাল্লিশ হাজার টাকা দাও-আমি বাড়ী তিনখানা দিচ্ছি। কেমন, শাইলক চলে, সে রাজি হত ?” নলিনী অধোবদনে বসিয়া রহিল । ছি নলিনী, কেবল রাগিতেই জান ! কেবল কাটা কাটা বোলই শিখিয়াছ! মাথা একটু খেলে না ? বলিলে না কেন—“আচ্ছ, বাড়ী : তিনখানা বিক্রী করে তোমার পয়তাল্লিশ হাজার টাকা কেটে নিয়ে, পাচ ; হাজার টাকা দাও।”—তোমার বিপিনদা কি উত্তর দিতেন একবার শোন যাইত। l কিয়ৎক্ষণ নীরব থাকিয়া, বিনীত কাতরস্বরে নলিনী বলিল—“ভাই, পয়তাল্লিশ হাজার টাকার কথা কি বলছ, আজ যদি পয়তাল্লিশটে টাকা ।