পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


)বাল্যবন্ধু SS مقے নয়ে বাড়ী ছেড়ে দেবার প্রস্তাব করতে, তাও আমার সাধ্য হত না । ঘরে যা আছে, আজ কাল পরশু—তিন দিনেব খোরাক হবে । তার পরদিন থেকে উপবাস।” বিপিনবাবু চুরটে একটা লম্বা টান দি অল্প অল্পে সেই রাশিরুত ধূম কু ফু করিয়া বাষ্টির করিয়া দিলেন । শেষে বলিলেন—“আমায় কি করতে বল ?” নলিনী তখন হাতছুটি যোড় করিয়া লহ লাগিল—“ভাই, ছেলেবেলায় আমাদের দুজনের মধ্যে যে ভী-ব:স ছিল, সেই ভালবাসার দোহাই, আমাকে নষ্ট কোরো না। আমার সুদ কিছু তুমি মাফ কর । আমার বাড়ী তিনখানার দাম এখন পঞ্চাশ জার টাকার উপর, তা তুমি নিজেই বলেছ। তুমি বিষয়ী লোক, আমার চেয়ে এ সব জিনিষ তুমি অনেক ভালই জান। তুমি এই ভাড়াটে বাড়া দুখানা নিয়েই আমায় নিস্কৃতি দাও। ও দুখানার দামও অন্ততঃ ছত্রিশ সাঁইত্রিশ হাজার টাকা হবে---আমার দেনার আসল পচিশ হাজার টাকার চেয়ে • ত অনেক বেশী। মনে কর সুদটা কিছু কমই পেলে। আমার পৈতৃক ভিটেখানি আমায় ছেড়ে দাও । নইলে ছেলে পিলে নিয়ে আমায় রাস্তায় দাড়াতে হবে। আমার মাথা গোজবার স্থানটুকু থাকলে, আমি দুঃখ ধানা করে হোকৃ—যেমন করে হোকৃ—ছেলেপিলে গুলিকে ডাল ভাত খেতে দিতে পারব। আমি তোমার কাছে নগদ কিছু চাচ্ছিনে—যদিও আজ তিনটি মাত্র টাকা আমার সম্বল। তুিন দিন আমার খাবার আছে, এর মধ্যে আমি একটা কিছু যোগাড় করে নেব । স্বদের টাকা কিছু আমায়ু মাফ কর । বসত বাড়ীর কবাল খানি আমায় ফিরে দাও।” বিপিনবাবু মস্তক অবনত করিয়া শুনিতেছিলেন,—ৰ্তাহার চুরট নিবিয়া গিয়াছিল । নলিনীর বাক্য শেষ হইলে, জানালার বান্ত্রিকে