পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাল্যবন্ধু やが登 একাদশ পরিচ্ছেদ চিঠিতে এইরূপ লেখা ছিল— ভবানীপুর ভাই নলিনী, বাল্যকাল হইতে আমরা একত্র খেলা করিয়াছি, আমাদের সেহ বাল্যজীবন বড় মধুময় ও পবিত্র ছিল । হায়, যদি চিরদিনই সেইরূপ থাকিত ! মনে আছে, বাল্যকালে যদি কখনও আমরা একে অপরের প্রণয়ে সন্দিহান হইতাম, তাহা হইলে কত না কষ্ট পাইতাম । আজি ও তোমার প্রতি আমার মনোভাব সেইরূপই আছে। কিন্তু আজ ছয় বৎসর কাল তুমি মনে করিতেছ, আমি সে পূৰ্ব্বস্নেহ একেবারে বিস্তৃত হইয়া, এখন একটি হৃদয়হীন অর্থপিশাচে পরিণত ইষ্টয়াছি। আমায় এরূপ মনে করিয়া নিশ্চয়ই তুমি হৃদয়ে অনেক কষ্ট অনুভব করিয়াছ-আর আমিও একারণে অল্প মনোবেদন সহ করি নাই । কিন্তু ঈশ্বরের ইচ্ছায় আমাদের উভয়ের সকল কষ্ট পার্থক হইয়াছে। তুমি যখন পিতার মৃত্যুর পর কুসঙ্গে পড়িয়া টাকা উড়াইতে লাগিলে, তখন মাঝে মাঝে আমি তোমায় সে জন্ত কত ভৎসন করিয়াছি। কিন্তু তুমি আমার কথায় কর্ণপাত মাত্র কর নাই । তুমি যখন তোমার মহাজনদের ঋণপরিশোধ করিবার জন্য আমার কাছে টাকা চাহিতে আস, তখন, পাছে আমার কাছে বন্ধক রাখিয়া পরে 教