পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/১১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SO3 গল্প-স্ট্রপঞ্চবালী মনে পড়াতে তাহার বকের ভিতরটা খচখচ করিতে লাগিল। রান্ত্রি প্রায় ৮টার সময় সারদাসুন্দরী পড়ার অপর কয়েকজন গিন্নাবান্নির সহিত e-नाफ़ाब्रन्द्धत्वाशिङ ठाकूरब्रव्र वाफ़ौ विछग्ना कब्रिाऊ cर्शरणन । नग्निच्कब्र काँमनि ब्राष्ट्रि । প্রভার পিতাও কাঁধে চাদর ফেলিয়া ছড়িহন্তে বাহির হইলেন। বাড়ীতে রহিল কেবল প্রভা, আর তার মামী ঠাকুরাগী। প্রভা মামীর ঘরে বসিয়া বসিয়া তাঁহার সহিত কথা-বাত্ত কহিতেছিল, কি একটা প্রয়োজনে নিজেদের শয়ন-ঘরে আসিল । তাহা সারিয়া, মামীমার ঘরে যাইবার জন্য যেই দাওয়া হইতে উঠানে নামিয়াছে, অমনি জ্যোৎস্নালোকে দেখিল—সম্মখে তার বর! দেখিয়াই সে ব্যস্তচাবে মাথায়ু ঘোমটা দিতে হাত উঠাইল, কিন্তু দুষ্ট নীল খপ করিয়া তাহার হাতখানি ধরিয়া ফেলিয়া বলিল, “আর ঘোমটা দেয় না ! এখানে কে আছে ? আগে আমার সঙ্গে কত হাসতে, গলপ করতে, সে সব ত বন্ধই করেছ। এদানী এমনই ডমরের ফল হয়ে দাঁড়িয়েছ যে, মুখখানি দিনাতে একবার দেখতেও পাইনে। আজ বছরকার দিনেও একটিবার দেখবো না ?” প্রভা লজ্জায় রাঙা হইয়া চলপি চলপি বলিল, “হাত ছাড় না, ও কি ?” নীল ও নিম্ন স্বরেই বলিল, “ছাড়বই বা কেন ? যার যা জিনিষ, সে কি তা ছাড়ে ?” বলিয়া প্রভার অপর হস্তটিও ধারণ করিয়া প্রভাকে নিজের দিকে টানিল । প্রভা যেন জ্ঞানহারা হইয়া পড়িল, তাহার দেহ কাঁপতে লাগিল। অশিষ্ট বালক, তাহাকে নিজ বক্ষে জড়াইয়া, তাহার মুখচন্বন করিল! প্রভার তখন জ্ঞান ফিরিয়া আসিল। সে গলায় অাঁচল দিয়া, হাঁট গাড়িয়া বসিয়া, নীলমাধবকে প্রণাম করিয়া তাহাব পদধলি লইল । নীল, তাহাকে হাত ধরিয়া তুলিয়া মদস্বেরে বলিল, “বোঁচে থাক, সখে থাক। তোমার মা বাপকে প্রণাম করতে এসেছিলাম, কিন্তু তাঁরা ত বাড়ী নেই, ফিরে এলে তাঁদের বোলো যে, আমি এসেছিলাম। তোমার সঙ্গে তব বিজয়টা হল। কিন্তু দেখ BBB D BBB DD DD BBBS BBB BB BBBD DDDDD DDD DDDB g DDD উঠানে দাঁড়িয়ে আর নয়! কি বল ?” মন্দ হাসিয়া অাদরে প্রভার চিবকে পশ করিল। তারপর বলিল, “পোড়া বোশেখ মাস যে কবে আসবে তা জানিনে! একটা কথা বুলে যাই–মাঝে মাঝে দেখা দিতে কৃপণতা কোর না। যেদিন তোমার মখেখানি একটিকারও না দেখি, সে দিনটা যেন অগধকার বলে মনে হয়। আচ্ছা এখন তবে আসি ” बलिया नौब्द फलिग्ना राज । মামৗমা তাঁহার অন্ধকার বারান্দায় দাঁড়াইয়া এই দশটি আগাগোড়া দেখিয়াছেন, কিন্তু কথোপকথন শুনিতে পান নাই। আপন মনে তিনি হাসিয়া বলিলেন, “ওমা! এ যে দেখচি গাছে না উঠতেই এক কাদি । এখনও ত বাপ বিয়ে হয়নি—এরই মধ্যে এত । আর ছড়িটাও ত বেহায়া কম নয়। কালে কালে এ সব হল কি ? দাগ দগা।” সারদাসুন্দরী বাড়ী ফিরিলে, মামীমা গোপনে তাঁহার নিকট এ ব্যাপারটি বর্ণনা করিলেন। শনিয়া, সারদাসুন্দরী হাসিলেন। রাত্রে ঘুমন্ত মেয়ের গায়ে হাত বলাইতে বলাইতে তিনি মনে মনে আশীব্বাদ করিতে লাগিলেন—“ঐ স্বামী নিয়ে তুমি চিরসখী হও মা !? ৷৷ চতুর্থ পরিচ্ছেদ ॥ এবার শীতটা খাব প্রবল ভাবেই পড়িয়াছে। অগ্রহায়ণের হিম লাগিয়া অনেকের अन्नि“ कर्णान श्रङ जात्रिाल, ७पर कश् एकद छद्भरग्न७ नफिरछ जात्रिाल; किन्छू एन ম্যালেরিয়া নহে, বঙ্গদেশে ম্যালেরিয়ার নামও তখন কেহ শোনে নাই।