পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/১৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভল SO4 छूध sछीनन एकन स्राबाग्न यजौन-ठा श्रल ठ डीब्र भौभारना अरनक निन आरभई श्रद्भ যেতে পারত। তোমাকে বিবাহ করে আমি একদিন সখী হব—আমাদের ভবিষ্যৎ স্বল্পकम्बाब्र ७कमीछे शब, ७भनं निन ट्नई ट्य श्राभि कण्णनाञ्च क्रिशिठ कर्गब्रान; किन्छू प्न ष्टाि रथरक ८ठामाब्र बाबारक क्षाभि •ठ कानe मिनई दान निरग्न रझथिान । ८ठाभाग्न बाबाग्न काष्ठ থেকে তোমায় আমি ছিনিয়ে নিয়ে সংসার পাতবো—এমন হৃদয়হীন আমি ত নই লীলা । —তাঁকে আমাদের সংসারে নিয়ে এসে, আমাদেব মাথার মণি করে রাখবো। তুমি একা তাঁর সেবা যত্ন করে থাক—আমরা দুজনে মিলে কববো।--তা হলে, আর ত কোনও বাধা নেই লীলা ?” লীলা বলিল, “কিন্তু তুমি ত জান সরোজ, তিনি বড়ই স্বাধীন প্রকৃতির মানুষ। তিনি যে জামাইয়ের সংসারে ভাব বোঝা হয়ে বাস করতে বাজি হবেন, এমন ত মনে করা যায় না!” “আমি কি হাতে পায়ে ধরেও তাঁকে রাজি করতে পারবো না ?” “আশা কম। তুমি তাঁকে বলে দেখতে পাব। একটা কথা বলি, তুমি মনে কিছর দুঃখ কোর না সরোজ—তুমি যদি মাসে মাসে তাঁকে সম্পর্ণে খরচ তাঁর কাছে নিতে স্বীকৃত সুতুল - আমি ফন ল অফ দ্য রেফ আল বাৰ দৰে יין সরোজ বলিল, ঐ সত্তে ভিন্ন তিনি যদি রাজি না-ই হন, তা হলে অগত্যা তাই হবে। দেখ, সকল বাধাই ত ঘচে গেল, এবার তুমি বল লীলা, তুমি আমার গ্রহণ করবে। আমাকে আর সংশয়ের মধ্যে ফেলে রেখ না—আমাকে সখী কর।” লীলা বলিল, “আমাকে পেলে যদি তুমি সখী হও—তা হলে তা হলে—আমাকে নাও তুমি।” ষোল-আনা লওয়া, গিজায ভিন্ন অপর কোথাও ত সম্ভব নয়। তাই, আপাততঃ সরোজ বায়না লইল-লীলাকে বকে জড়াইয়া, তাহাকে চাবন করিল। আজ ছয় মাসের অধিককাল, উভয়ে উভয়ের মন জানিয়াছে—উভয়ের এরপে নিভৃত ও দীর্ঘকাল সাক্ষাতের স.যোগও বহুবার হইয়াছে—কিন্তু সরোজ বাক্যে ভিন্ন, লীলার সহিত প্রণয়িজনোচিত ব্যবহার কোনও দিন করে নাই—তাহার ধর্মবখি, তাহার ভদ্রতা জ্ঞান, লেশমাত্র অসংযম হইতে এতদিন তাহাকে রক্ষা করিয়া আসিয়াছে। তারপর এবিষয়ে দুজনে আলোচনা হইল। লীলার পিতা যখন ইহাদের অর্থের উপর কিছু মাত্রও ভাগ বসাইতে সম্মত নহেন—সবোজ যাহা বেতন পায়, এবং লীলা চিকিৎসা ব্যবসায়ে যাহা উপাত্তজন করে, তাহাতে, ব্যয়বাহুল্য না করিয়া, সন্তা অঞ্চলে একখানি ছোটখাট বাড়ী লইয়া সাধারণ ভদ্রগহন্থের মত থাকিলে এখনই এ দটি প্রাণী, সম্মিলিত জীবন যাপন করিতে পারে। য়-বোপীয় সমাজে, বিবাহের দিনটি স্থির করিবার ভার একমাত্র “কনে’র উপর;—তদনসারে সখেমিলনের সেই দিনটি যত শীঘ্র সম্ভৰ নিদ্ধারণ করিবার জন্য সরোজ লীলাকে পীড়াপীড়ি করিতে লাগিল। লীলা বলিল, “আচ্ছা তাই হবে গো হবে । বাবার কাছে আগে সব কথা বলি। কাল সকালে তুমি আমাদের বাড়ী আসছ ত, সেই সময় শনতে পাবে।” 豪 সরোজ বলিল, “আচ্ছা লীলা আমি এক কাজ করি। এখাঁন তোমাদের বাড়ী যাই চল না। আমি বরং নীচে লুকিয়ে বসে থাকবো এখন; বাবার সঙ্গে কথাবাত্তা করে এক মিনিটের জন্যে তুমি এসে আমায় বলে যাবে।” লীলা বলিল, “না না সে কি হয় ? কাল সকালে এসে তুমি শনবে। তোমার যে আর দেরী সইচে না দেখছি " - "মানুষের সহন শক্তির একটা সীমা ত আছে ? আর কত সওয়া যায় বল ”ি—বলিয়া