পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


इब्राथम ബ ● তারাসন্দেরী কহিলেন, “উঠৰি কেন দলেবউ ? এতদিন পরে এলি, এইখানেই দুটি খৈয়ে যা । নাওয়া হয়েছে ?” “না মা, নাওয়া এখনও হয়নি। তা বেশ, দটি পেসাদ দিও, খেয়েই যাব। তোমাদের খেয়েই ত মানুষ মা; আজ বলে নয় সাত পৰে। তা একটা তেল দাও, নদীতে যাই।” দলেবউ নদী হইতে স্নান করিয়া যখন ফিরিল, তখন প্রতিদিনের প্রথামত রামলোচন হারাধনকে লইয়া ভোজনে বসিয়াছেন। দলেবউ গোয় লম্বরের ছায়ায় নারিকেলগছের আড়ালে বসিয়া হারাধনের প্রতি একদটে চাহিয়া রহিল। পরষদের আহার শেষ হইলে, দলেবউকে ভাত দিয়া, বড়বউ ও ছোটবউ খাইতে বসিলেন। আহারান্তে ছোটবউ নিজ ঘরে চলিয়া গেলেন। দলেবউ পাকুরঘাটে গিরা অচিাইয়া আসিয়া নিজ আহারস্থান পরিকার করিল। হাত মুখ ধুইয়া আসিয়া, আলগোছে গিন্নীর হাত হইতে একটি পাণ লইয়া মদস্বেরে বলিল, “গিন্নিমা একটা কথ, আছে, किल्लु बक्रि अट्न ना कन्न उ बर्षात्न ।" ত রাসুন্দরী জিজ্ঞাসা করিলেন, “কি কথা দলেবউ ?” “ ঐ যে মিন্সেটা বাকবে সঙ্গে বসে খেলে, ও কে ? তোমাদের কেউ হয় ?” “না, আমাদের কেউ না, দোকানের মহেন্রী।” “কত দিন এসেছে ? ' “এই মাসখানেক হবে। কেন দলেবউ, এ কথা জিজ্ঞেস করছিস কেন ?" দলেবউ এদিক ওদিক চাহিয়া নিম্নস্বরে কহিল, “ও লোক ভাল নয় মা, ওকে তাড়িয়ে দীও । ছোট গিন্নী এখান আসবার মাসখানেক আগে, ও মিনসে আমাদের গাঁয়ে গিয়েছিল। ও কে, কি বিত্তান্ত কেউ জানে না। যদি মিথ্যে বলি ত আমার জিভে যেন খসে যায় ম—সন্ধের পর তোমাদেব বাড়ীর বাগানের ধারে, পঙ্কুেরঘাটের পথে—এই রকম সব জায়গায়, দুতিন দিন ছোটবউয়ের সঙ্গে ফসর ফসর করে কথা কইতে ওকে আমি বচক্ষে দেখেছি। আমি কেন, আরও কত নোক দেখেছে। এ নিয়ে গাঁয়ে একটা কাণাকাণিও সর হয়েছিল। তাব পর মিনসে কোথায় চলে গেল, আর দেখতে পাইনি। আবার এখানে এসেও জটেছে দেখছি। কার মনে কি আছে তা নারায়ণই জানেন, কিন্তু এসব কি ভাল মা ? তোমল ভন্দনোক গাঁযেব মাথা ছি ছি, এ কি কাণ্ড "–বুলিয়া দলেবউ প্রণাম করিয়া বিদায় গ্রহণ করিল। তারাসন্দেরী কাঠেব পর্তুলের মত দাঁড়াইয়া রহিলেন, তাঁহার মখ দিয়া একটি কথাও বাহির হইল না। তিনি কেবলই ভাবিতে লাগিলেন, তবে ত স্বামী যাহা সন্দেহ করিয়াছেন, তাহাই ঠিক, আমার বিশ্বাসই ত ভুল ! இ ৷ সাত ॥ অপরাত্বকালে ছোটবউ বললেন, "দিদি, এখন তুমি • অনেকটা সন্থে হয়ে উঠেছ, বটঠাকুৰ আমার টাকাগুলির ব্যবস্থা করে দিলেই আমি দেশে চলে যেতে পারি। আড়াই হাজার টাকা যদি এখন নাও হয়ে ওঠে, আপাততঃ দু'হাজার পেলেও আমার চলবে—পরে তুলি ন ন ন ললে। আজকে বটঠাকুরকে তুমি বোলো মনে করে o יין বড়বউ গভীরভাবে বলিলেন, “আচ্ছা তা বলবো।” মনে মনে বলিলেন, “তোমায় চাতেনাতে একবার ধরি দাঁড়াও, ধীরে অচ্ছা করে ঝাঁটাপেটা করি, তার পর বোধ হয়, তুমি দেশে না গিয়ে কাশী কি বান্দাবন যেতেই চাইবে।” রাত্রে আহারাদির পর নিজ কক্ষে শয়ন করিয়া তারাসন্দেরী স্বমীকে বলিলেন, “ওগো,