পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/১৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


যোগবল না সাইকিক ফোস ? షిఱ6; यनन्छ ब्राग्न बलिज, “कि कब्रि, शिम्शौ इफ़िरजन ना ! भवग्नछे छानिबाब्र छना आञिहैं। ७थाळन आनिब कथा झिण, शन शाफ़रजन ना-नण्ण लश्णन । ब्राउ-दिब्राउ छेनि श्रायाञ्च একা কোথাও যাইতে দেন না। —বলিয়া বসন্ত সয়ীর পানে চাহিয়া হাসিতে লাগিল। "Silly !”—বলিয়া সরুমারী তার স্বামীর বাহতে মদ চপেটাঘাত করিল। সাবাটিনি বসিয়া বলিল, “তাই নাকি? তবে ত তুমি খুব শক্ত পাল্লায় পড়িয়াছ। লণ্ডন মিউজিক হলের সেই গানটা মনে পড়ে ?—ষার প্রতি কলির শেষে আছে-- “And his little wife was with him all the time !" (oft wo, Horwit সঙ্গে থাকতো) । বসন্ত বলিল, “খব মনে পড়ে । তুমি, আমি, যোশী—তিনজনেই দিনকতক সে গানটা খুব গাহিয়াছিলাম –সে যাক । ওখানে কি রকম হইল তাই বল।" সাবাটিনি বলিল, “যাহা যাহা পরামশ ছিল—ঠিক সেইরূপই হইল। প্রমীলাকে মিসেস রায় যেমন শিখাইয়া রাখিয়াছিলেন, সে ঠিক ঠিক সেইরাপই বলিল। মেয়েটা অভিনয় করিল চমৎকার—বাহাদরী আছে।” সকুমারী বলিল, “তারই বঝি বাহাদরী। তোমার মাথা হইতে যে এতবড় সুফি ফ ম আবাদ তোমার বাহাদরী নয় ? তারপর ‘পাপা কি বাললেন ?” সাহেব বলিল, “রাজি—on the spot ' বিবাহ পিথর।” রায বলিল, “সাবাটিনি তোমার বেয়ারাকে ডাক ত, একখানা টেলিগ্রামের ফম দিক । সেই রাস্কেল যোশীকে আনন্দ সংবাদটা তার করিয়া দিই।" বায়ের মোটর গাড়ী রাস্তায় দাঁড়াইয়া ছিল। টেলিগ্রাম লিখিয়া, নিজ শোফেয়ারকে ৬াকাইয়া রায় উহা বড়া তারঘরমে’ ‘ল্যগাইয়া আসিতে আদেশ দিল। সাবাটিনি বলিল, “আজিকার আনন্দ উৎসবটা শ্যাক্ষেপনে সম্পন্ন করা যাক —অবশ্য মিসেস রায় যদি অনুমতি করেন।” মিসেস রায় অনুমতি দিলেন। শ্যাম্পেন আসিল। বয়, তিনজনের সম্মুখে তিনটি শ্যাম্পেন গলাস রাখিল। সকুমারী এক গলাসের বেশী গ্রহণ করিল না। ইহারা দই মাত্তি দেখিতে দেখিতে শ্যাম্পেনের বোতল শেষ করিয়া, হাইকির ও সোডার আনুগত্য স্বীকার করিলেন। হাস্য পরিহাসের মধ্যে গল্প খুব জমিয়া উঠিল। গল্পের মধ্যে যে তথ্যগুলি প্রকাশ পাইল তাহা দফাওয়ারি এইঃ– (১) যোশী, বসন্ত ও সাবাটিনি তিনজনে একই সময়ে লন্ডনে প্রবাস-যাপন করিয়াছল—তখন হইতেই ইহাদের বন্ধত্বে। o (২) সাবাটিান যথার্থই হিপনটিজম ও মাজিক বিদ্যা শিক্ষা করিয়া, প্রাচ্য অথোপাক্তজনের চেন্টায় আসিয়াছিল : সে প্রথমে সিমলায় গিয়া যোশীর আতিথ্য গ্রহণ করে। এবং সেইখানেই বন্ধর প্রণয-সঙ্কটের বিষয় অবগত হয়। (৩) যোশী ও প্রমীলার মধ্যে বসন্ত ও সরুমারী মারফৎ রীতিমত প্রেমপত্র-বিনিময় চলিত। প্রমীলার পীডার সময়, স্কুমারী প্রত্যহ যোশীকে টেলিগ্রাম করিত প্রমীলা কেমন আছে । 藝 (৪) বাকশক্তি হারাইবার ভাণ করার মতলব সব প্রথমে সাবাটিনির মস্তিকেই కా! পরে পল্লযোগে বসন্ত ও সরুমাবীর সহিত এ ষড়যন্ত্র পাকা করা হইয়া| কিন্তু পিতামাতার সহিত এরপে প্রতারণা করা প্রমীলার অত্যন্ত অন্যায় হইয়াছিল সন্দেহ নাই—অন্ততঃ, আমাদের মতে। কিন্তু পাশ্চাত্য মত এই যে, Everything is dair in love and war-zaga e যুদ্ধে কিছুই দোষের নহে।