পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৩১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ՑoԵ গল্প-গ্রন্থাবলী মোড়ে নামিয়া, গোপালবাবরে বাড়ীর দিকে চলিলেন। আরও ঘণ্টাখানেক পরে বাড়ী পেপছিয়া অবিনাশবাব দেখিলেন, সবেমা নিদ্রিত, তাহার গালে চোখের জলের দাগ । శా পরে সষেমা জাগিয়া বলিল, “ওগো, পঞ্চাননের সঙ্গে তোমার দেখা ייה “হ্যাঁ, হয়েছে বইকি ! তাকে লীলা থিয়েটারে পাঠিয়েছি। ম্যানেজার কি বললে কালকে কলেজে বোধ হয় শনতে পাব তার কাছে।” সযমা ক্ষীণদ্বরে বলিল, “সে এসেছিল ঘণ্টাখানেক আগে। ওরা বইটে নিয়েছে— রিহাসর্ণল চলচে–পঞ্চানন দেখে এসেছে। আসছে শনিবারের পরের শনিবারে নাকি খলবে বলেছে।” অবিনাশবাব মুখে কৃত্রিম হাসি টানিয়া আনিয়া বলিলেন, “নিয়েছে ? আঃ, বাঁচা গেল। আজ হ’ল কি বার ? বন্ধবার। বধে বধে আট, বহিস্পতিতে নয়, শনকে দশ, শনিতে এগারো। এগারো দিন পরে প্লে আরম্ভ হবে, প্রথম রজনীতে আমরা দু’জনে দেখতে যাব না ? তুমি শীগগির ভাল হয়ে নাও।” সষমা বলিল, “দেখি চেন্টা করে " সষমার বেদানার রস পান করিবার সময হইয়াছিল। উহা পান করিয়া সে ঘুমাইয়া পড়িল । অবিনাশবাব লক্ষ্য করিলেন, তাহর মখে শান্তি বিরাজ করিতেছে। পাঁচ ॥ এই কালপনিক গভসংবাদ বাস্তবিকই সষমার ব্যাধিতে মহৌষধির কায্য করিল। দিন দিন সে সস্থ হইয়া উঠিতে লাগিল। পঞ্চাননের পরামশে বিজ্ঞাপনের ভয়ে বাড়ীতে সংবাদ-পত্রের প্রবেশ একেবারে নিষিদ্ধ হইয়াছে। সে মাঝে মাঝে আসিয়া তাহার গরে পত্নীকে রিহাস’ল-সম্পবন্ধে নানা কাল্পনিককাহিনী বলিয়া যায়। শক্লেবার আসিল। সৰ্ষমার জর আর নাই, কিন্তু, আজিও সে অন্নপথ্য করে নাই। স্বামীকে বলিল, “ওগো আমি ত পারলাম না, তুমি কাল থিয়েটারে যাও, কি রকম অভিনয় হয়, লোকে তা কি ভাবে নেয়, জেনে এস।” অবিনাশ বলিল, “পাগল ! আমি যাব একা, প্রেমের ইন্দুজাল দেখতে ? যখন যাব, দু'জনে যাব, তুমি শরীরে একটা বল পাও আগে। পঞ্চাননকে পাঠিয়ে দেবো. সে দেখে এসে বলবে প্লে কেমন ওৎরালো ৷” সষমা আর কোনও কথা বলিল না। “প্রেমের ইন্দ্রজাল"-এর পাণ্ডুলিপি পঞ্চানন পাবেই চাহিয়া লইয়া গিয়াছিল। উহা হইতে সে একখানি প্রোগ্রাম ছকিয়া তাহা ছাপাইয়া লইল। উপরে লীলা থিয়েটারের নাম, তারপর পাত্র পাত্রীর পরিচয়, অন্ধক, গভর্ণাঙ্ক—এমন কি শেষে ইংরাজি হরপে ছাপা ম্যানেজারের নামটি পয্যন্ত। রবিবার প্রাতে, এই প্রোগ্রাম হাতে লইয়া সে অবিনাশবাবর গহে আসিল এবং অভিনয়-সম্বন্ধে অনগ’ল অনেক কালপনিক-কাহিনী বলিয়া গেল। এমন কি, অভিনয়কালে একজন মাতাল পাশ্ববত্তী দশকের গাত্রে বমি করিয়া দিয়া কি ভাবে লাঞ্ছিত ও বিতাড়িত হয় তাহাও জানাইল ।