পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৩৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


●总岛 阿 शक्त्र-छब्दारुणौ

  • ाघ्रौ जाय चिह्ने खञ्जं ब्रिह्मा, अकाश्वट्झ ब्रञ्जयजनं, “जाधि ऎश्ान श्रिडाचश् ॥”

ಇಸ್ ಇಣ, ಜ * * ಗೌಣ बीजटणम, “कि बाँल८ठरइन թո श्राप्तौ। गिणट्छ अण्जान्न चाश्नान्न भाषा टश्झै ह३म्रा बाइँटअछ। "किन्छु ना बाँलट्जe নয়। আপনি আমার পর জোসেফকে দেখিয়াছেন ? ডাক্তার। আমি গত বৎসর আপনার আলয়ে চা-পানের নিমন্ত্রণে গিয়া আপনার এক পত্রকে দেখিয়াছিলাম, বছর কুড়ি বাইশ বয়স। পাদ্রী। সেই। সেই দশচরিত্র কুলাঙ্গারই ঐ পত্রের জনক। ডাক্তার। আর, জননী ? পাদ্রী। যাহাকে আপনি শিশর দন্ধ-মা নিষত্ত করিয়াছিলেন, সেই হতভাগিনী বালিকা। এই সময় দ্বিতল হইতে কুন্দনের শব্দ আসিল—“ওরে আমার সোণা রে, আমার মাণিক রে, তোর ফলিমাকে ছেড়ে তুই কোথায় গেলি রে!” oftast Tverų færs østfortss=ī, “Poor Girl ! Poor Girl !” ফলির আচরণ, শিশুর গাত্রবণ-রহস্য, ডাক্তার সাহেবের নিকট দিনের আলোর মত পরিস্কার হইয়া গেল। তাহার পর পাদ্রী সাহেব যাহা বলিলেন, তাহার সারমক্ষম এই।—ব্যাপারটা জানাজানি হইলে মেমসাহেবের নিকট শনিয়াছিলেন, তাঁহার আয়ার ইচ্ছা, ফলির গভ নষ্ট করাকারণ, জামাতা আসিয়া শিশুর গাত্রবণ দেখিযা কখনই বিশ্বাস করিবে না যে, শিশু তাহারই ঔরসজাত—বিশেষ যখন ফলির মা সাহেবের বাড়ীতে চাকরী করে এবং ফলিরও সেখানে যাতায়াত আছে। পাদ্রী সাহেব তাহাকে বলিয়াছিলেন যে, খপরন্দার, উহা পাপের উপর মহাপাপ। ওরাপ করিবার চেষ্টা করিলে, তিনি পত্রের কলঙ্কভয এবং লোকলজা পরিত্যাগ করিয়া তখনই পলিসে সংবাদ দিবেন। আয়া বলিয়াছিল, “আমার জামাই আসিয়া ছেলে দেখিলে তখনই আমার মেয়েকে পরিরত্যাগ করবে, তাহার উপায?” তাহাতে পাদ্রী সাহেব আশ্বাস দিয়াছিলেন যে, যাহা হউক একটা সব্যেবস্থা তিনি করিয়া দিবেন। তাঁহারই উপদেশ অনুসারে মলির মাতা শিশকে আনিয়া এই বাড়ীতে রাখিয়া গিয়াছিল, কারণ, তাঁহার বিশ্বাস ছিল, নিঃসন্তান ডাঞ্জার ভাদুড়ী উহাকে পাইয়া যত্নেব সহিত প্রতিপালন করিবেন, এবং কাষ্যতঃ হইয়াছিলও তাহাই। শিশরে জন্য একজন দধ-মা আবশ্যক হইবে বঝিয়াই ফলিকে ডাক্তার সাহেবের হাসপাতালেই পাঠাইয়া দেওয়া হয়। নচেৎ হাসপাতালে দিবার কোনই প্রয়োজন ছিল না। অায়া তাহার কন্যাকে শিখাইযা দিয়াছিল, তোর ছেলে হইয়াছিল না, বলিস মেয়ে হইয়াছিল, তাহা হইলে তোর সম্বন্ধে কাহারও সন্দেহ হইবে না। আর বলিল, দশ মাসে হয নাই, আট মাসে হইয়াছিল। তাহা হইলে জামাইও কোন অন্যায় সন্দেহ করিতে পারবে না। এই সকল বিবরণ শেষ করিয়া পাদী সাহেব বলিলেন, “দেখনে পাপে ঐ শিশর জন্ম। আমরা উহাকে ব্যাপটাইজ করিতে চাহিয়াছিলাম, তাহাও তখন আপনি দিলেন না। এখনও উহার আত্মা প্রভু যীশর শরণ লইলে অনন্ত নরক হইতে পরিত্রাণ পাইবে —ইহাই আমি বিশ্বাস করি। সেইজন্যই আমার কত্তব্য উহাকে খাটধম অননুমোদিত অনুষ্ঠানের সহিত সমাধিস্থ করা।” ডাক্তার সাহেব সক্ষমত হইলেন। জিজ্ঞাসা করিলেন, “আপনার সে পত্রে জোসেফ এখন কোথায় ?” পাদ্রী সাহেব বলিলেন, "এ ব্যাপার ধরা পাঁড়বার পর আমরা তাহাকে বহন তিরস্কার করি এবং গহ হইতে বহিস্কৃত করিয়া দিতে চাহি। অবশেষে উহার জননীর একান্ত