পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৩৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*○Sb গল্প-গ্রন্থাবলী ०4कीछे छलान्ट्रल ८शल्ले वाजठौ टूलग्ना शब्रिट्जन । সাহেব বলিলেন—“এই নতন সিমেন্টের উপর জল পড়িয়া জ্যোৎস্নায় রক্ত বলির তোমার ভ্রম হইয়াছিল।” to এই সময়ে আবার সেই কাতরাণি শনা গেল। সাহেব বলিলেন—“বাব তুমি বিন্মিত হইয়াছ, ভয়ও পাইয়াছ । আমার সত্ৰী পীড়িতা—তাই ও কাতরাণি শব্দ। সকল কথা কাল সকালবেলা বলিব। আমি কোথাও যাই নাই। গাজীপরে যাওয়ার কথা ছলনা মাত্র। আমি দেনার জবালায় এমন করিয়াছি।” সাহেব চলিয়া গেলেন। আমি শয়ন-ঘরে ফিরিয়া আসিয়া দেখিলাম শৈলবালা ఫి অনেক কস্টে মাছা ভাঙ্গাইলাম। সমস্ত রাত্রি সেবা করিয়া তবে তাঁহাকে সন্থে কার । সকাল হইলে সাহেবের মুখে শুনিলাম, তিনি সেই রাত্রে আবার চাপে চাপে ফিরিয়া আসিয়াছিলেন। সঙ্গে একজন বন্ধ ছিল, সে ই‘হাদিগকে ভিতরে দিয়া তালা বন্ধ করিয়া চলিয়া যায়। সাহেবের নাকি মিউনিসিপ্যালিটীতে একটা চাকরী হইবে—হইলেই তিনি অজ্ঞাতবাস হইতে বাহির হইবেন। পাছে আমরা জানিতে পারি এই ভরে তাঁহারা দিনের বেলায় চাপ করিয়া বিছানায় পড়িয়া থাকিতেন। অনেক রাত্রি হইলে রান্না খাওয়া বরিয়া লইতেন। আমাদের রান্নাঘরের পাশে যে চৌবাচ্চা আছে, তাহা হইতে জল লইয়া যাইতেন। শৈলবালা ত এ কথা শুনিয়া মহা খাপা হইলেন, বলিলেন—না জানিয়া সাহেবের ছোঁয়া জল খাইয়া আমাদের সপবিবারের জাতি গিয়াছে। যাহা হউক আগামী বারের অন্ধোদয় যোগের সময় তাঁহাকে এলাহাবাদে লইয়া গিয়া গঙ্গাস্নান করাইয়া আনিব, এর,প অাশা দিয়া ঠাড়া রাখিয়াছি। ভাগ্যে আমার পত্রী জ্যোতিষ জানেন না। এই সে দিন অন্ধোদয় যোগ হইয়া গিয়াছে, আপাততঃ দশ বারো বৎসবের মধ্যে আর তাহা ঘটিবাব সম্ভাবনা নাই। পজোর চিঠি ভাগলপুর ৬ই অক্টোবর, ১৮৯৬ প্রাণাধিক, কাল রাত্রে সবগুন দেখিলাম যেন আমি খোকাকে লইয়া জানালায় বসিয়াছি, ঝি অসিরা তোমার চিঠি দিয়া গেল। চিঠি খলিয়া পড়িবার আগেই কিন্তু ঘমে ভাগিল। মনটা ভারি বিষন্ন হইল; আহা, বাহা স্বপন দেখিলাম, তাহা যদি সত্য হইত! অথচ এই সেদিন তোমার চিঠি পাইয়াছি, এত শীঘ্র আবার চিঠি আসিবার কিছু কথা নহে। মানুষের আকাঙ্ক্ষা কিছতেই মিটে না, যে বলে, তাহা কিন্তু যথার্থ। স্বপ্নটা মনে বড় বেদনা দিতে লাগিল। বাল্যকালে একটি কবিতা পড়িয়াছিলাম, তাহার কথাগুলি মনে নাই, ভাবটা এই যে, ষে সবপেন সুখী হয়, সে জাগে কাঁদিবার জন্য;—তাহার পর বিদ্যুতের সঙ্গে একটা তুলনা দেওয়া ছিল, সেটা আমি বিলকুল ভুলিয়া গিয়াছি (আমার স্মরণশক্তির যা তেজ তাহা তোমার কাছে অবিদিত নাই)—তুমি অলপ দুঃখে আমাকে লেখাপড়া শিখান হইতে বিরত হও নাই। যাহা হউক, তখন তিনটা বাজিয়াছে, খোকাকে উঠাইয়া দন্ধ খাওবাইলাম। দুধ খাইরা খোকা ঘুমাইতে লাগিল। একটা কথা আছে, কোন