পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৪০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভোজরাজের গল্প లిపిపి দেশ পৰ্য্যটন করিতে করতে অবশেষে ধারা-নগরীতে উপস্থিত হইলেন। তাঁহার কবিত্বখ্যাতি ইতিপবেই দেশবিদেশে রটিয়া গিয়াছিল। ধারাধিপতি ভোজরাজ, মহাসমাদরে ভোজরাজের গজপ (ভোজপ্রবন্ধ হইতে ) ৷ প্রথম পরিচ্ছেদ ॥ খঃ একাদশ শতাব্দীর কোনও একদিন (বার তারিখ এখনও প্রত্নতাত্ত্বিকেরা নির্ণয় করিতে পারেন নাই ) মালব দেশাধিপতি ভোজরাজ, একটা খুব খারাপ কাজ করিয়া ফেলিয়াছিলেন–বনের মধ্যে একটি পুকুরের ধারে নামিয়া, নিতান্ত চাষাভুষার মত, অঞ্জলি ভরিয়া ভরিয়া জল পান করিয়াছিলেন। অবশ্য মগয়া করিতে করিতে অত্যন্ত তুকাত্ত হইয়াই তিনি এ কাজ করিয়াছিলেন; কিন্তু মাগয়া ধারার প্বে একটা থামাস-ফ্ল্যাকে ভরিয়া চণ বরফ—অভাব পক্ষে শীতল জল, ট্র্যাপে বধিয়া কাঁধে বলোইয়া লইয়া গেলেই হইত। কিন্তু সেকালের রাজারা—ঐ এক রকমের মানুষ ছিলেন । মাগয়া করিয়া রাজা বাড়ী ফিরিয়া আসিলেন; কিন্তু মাথার ভিতর কেমন একটা অস্বতি বোধ হইতে লাগিল। মাথার ভিতর কি যেন খসে খসে করে। ঘন্ম হয় না, খাদ্যে রচি চলিয়া গেল। হইল কি ? দই চারিদিন এইভাবে কাটিলে, মাথার ভিতর রীতিমত যন্ত্রণা আরম্ভ হইল। রাজবৈদ্য মহাশয় আসিলেন, নাড়ী টিপিলেন, মাথাটা ঘরাইয়া ফিরাইয়া দেখিলেন, এবং রোগ নির্ণয়ে অক্ষম হইয়া, তাহা ঢাকিয়া লইবার জন্য অনেক লোক বাড়িলেন; খাইবার ঔষধ, মাথায় মালিসের তৈল—খবে দামী দামী সব ঔষধ আনিয়া রাজার চিকিৎসা আরম্ভ করিলেন। কিন্তু রোগের কিছমাত্র উপশম হইল না: উত্তরোত্তর বাড়িয়াই চলিল। "মাথা গেল মাথা গেল” শব্দ—আর বিছানায় পড়িয়া ছটফটানি । রাজা দিন দিন ক্ষীণ হইতে ক্ষীণতর হইতে লাগিলেন। রাজ্যের যেখানে যে চিকিৎসক ছিল, সবাই আসিল, সকলে মিলিয়া বসিয়া দীঘকাল ধরিয়া কনসলেটশন করিল; দিনে দুইবার করিয়া প্রেকৃপশন বদল হইতে লাগিল;–কিন্তু রোগ যেমন তেমনি—রোজ রোজ বাড়িয়াই যাইতেছে। অবশেষে সকলেই রাজার প্রাণের আশা পরিত্যাগই করিল। রাণীরা কাঁদিয়া কাঁদিয়া হবে না ।” a দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ ॥ দেবরাজ ইন্দ্র, সবগের সমস্ত এবং মত্তোর অনেকগুলি খবরের কাগজের গ্রাহক ছিলেন। সব কাগজ যে তিনি পড়িবার সময় পাইতেন তাহা নহে। তথাপি মল্যে দিয়া লইতেন, काव्रल नदनाश्ठिाद्धक ऍछे९नाश झान कृव्रा ठिनि निछ कखदिा दर्ताळणग्ना आळन कर्गब्राउन । একদিন রবিবারে, কাছারি না থাকায়, অলস মধ্যাহ বাপনের জন্য তিনি খবরের কাগজ পড়িতে আরম্ভ করিলেন। “মালোয়া টাইমস” খুলিয়া দেখিলেন, কি সৰ্ব্বনাশ । ভোজরাজ যে মরো মরো । আহা, বড় ভাল রাজা। যেমন পণ্ডিত তেমনি পণ্যবান । কাগজে লিখিয়াছে চিকিৎসায় কিছুমার ফুল পাওয়া বাইতেছে না। দেবরাজ আপন মনে