পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৪১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


80& গল্প-গ্রন্থাবলী "আজ সন্ধ্যার কিছুক্ষণ পবে, এই ব্যক্তি ( আসামীকে দেখাইয়া ) সিড়ি দিয়া উপরে উঠিয়া আসে। আমরা সে সময় সাজ-সজা করিয়া, ঘরে উজ্জল অলোক জবালিয়া, খরিদ্দারের অপেক্ষায় নিজ নিজ শয্যায় বসিয়া ছিলাম। আসামী প্রথমে প্রথম ঘরটির সামনে দাঁড়াইয়া, ভিতরে উপবিষ্টার পানে অপেক্ষণ তাকাইয়া রহিল, তারপর আর একটি ঘরের সামনে দাঁড়াইল, তারপর আর একটি—বঝিলাম খরিদার জিনিস পছন্দ করিতেছে। অবশেষে সে, আমাদের মতা সখীর ঘরে প্রবেশ করিয়া কপাট ভুেজাইয়া দিল। অতি অপেক্ষণ পরে সেই ঘর হইতে একটা গোঁ গোঁ শব্দ আমাদের কাণে আসিল । আমরা ভীত হইয়া বাহির হইলাম এবং সেই কামরার দিকে ছয়টিলাম। দয়ার ঠেলিতে উহা খলিয়া গেল। দেখি, আমাদের সখী, মেঝেয় বিছানো তার শয্যার উপর গলাকাটা অবস্থায় পড়িয়া মৃত্যুযন্ত্রণায় ছটফট করিতেছে, বিছানা রক্তে ভাসিয়া গিয়াছে এবং আসামী, বিছানার পাশে মেঝের উপর দাঁড়াইয়া ঠক ঠক করিয়া কাঁপিতেছে। হাতে একখানা রক্তমাখা ক্ষরে, তাহা দিয়া টপ টপ করিয়া রক্ত ঝরিতেছে। আমরা খন খন বলিয়া চীৎকার করিতে লাগিলাম। দেখিতে দেখিতে দেহ নিঃপন্দ হইয়া গেল। অনেক লোক ছটিয়া আসিল—তারপর পলিসও আসিয়া উপস্থিত হইল। প্রশন। এ ব্যক্তি কে ? মতার ঘরে এ কতদিন হইতে যাতায়াত করিতেছে ? সকলের উত্তর। মতার ঘরে ইহাকে পাবে কোনও দিন আসিতে আমরা দেখি নাই। এ কে তাহা জানি না, পবে কখনও ইহাকে দেখি নাই। একতলায় যে রমণীগণ বাস করিত, তাহার বলিল, সন্ধ্যার একট পরে এ ব্যক্তি প্রবেশ কবিয়া জিজ্ঞাসা করিল উপরে যাইবাব সিড়ি কোথা ? সিড়ি দেখাইয়া দিলে সে উপরে গেল। অপেক্ষণ পবে উপরে ভয়াত্ত চীৎকার শনিয়া আমরা উপরে গেলাম এবং দেখিলাম—বিতলে রমণীগণ যে দশ্যের বণনা করিয়াছিল, ইহারাও সেইরুপ বলিল । আরও বলিল, আসামীকে পৰেব তাহারা কোনও দিন দেখে নাই। প.লিস, লস হাসপাতালে পঠাইবাপ লাবস্থা করিয়া, আসামীকে গ্রেপ্তার করিয়া লইষা গেল । যথাসময়ে আসামী নরহত্যার ধাবায় চালান হইয়া, বিচারাথ প্রেসিডেনিস ম্যাজিস্ট্রেটের এজলাসে প্রেরিত হইল। সে বাড়ীর রমণীগণ পলিসের নিকট যাহ বলিয়াছিল, মাজিস্ট্রেটের এজলাসেও সেইরপে বলিল। শেষে, যে ডাক্তার সাহেব লাস পরীক্ষা করিয়াছিলেন, তিনি আসিয়া সাক্ষীমঞ্চে দাঁড়াইলেন। শব-ব্যবচ্ছেদ করিয়া তিনি যাহা যাহা দেখিষাছিলেন, বণনা করিলেন। গলার সেই কাটার মাপ,—লম্বায় কতখানি, কোনখানে কতটা গভীর ছিল, তাহা বলিলেন। সরকারী উকীল তাঁহাকে জিজ্ঞাসা করিলেন—“আপনি বলিতে পারেন, এ কাটা suicidal (মতা নিজের গলা নিজে কাটিয়াছে ) অথবা homicidal ( অপর কেহ কাটিয়াছে ? ) এখন, Medical Jurisprudence গ্রন্থগুলিতে এরপ অবস্থায় প্রশ্নের উত্তর দিবার পন্থা নিদিষ্ট আছে। কেহ নিজের গলা নিজে যদি কাটে, তবে অস্ত্রটা রহিল তার ডান-হাতে, সে উহা গলার বাঁ-দিকে বসাইয়া, টানিয়া ডান-দিকে লইয়া গিয়া থামিল। সতরাং বাঁ-দিকের ক্ষতের গভীবতা হইবে সবচেয়ে কম। গভীরতা ক্ৰমে বাড়িয়া বাড়িয়া, ডান-দিকে যেখানে শেষ হইয়াছে, সেখানে হইবে সবচেয়ে বেশী। কিন্তু অন্য কেহ যদি তাহাকে হত্যা করিবার মানসে এইরুপ করে, তবে সে অপর ধরিবে নিজের ডান-হাতে; বসাইবে, যাকে খন করিতেছে তার গলার ডান-পাশে, সেখানে গভীরতা হইবে সবচেয়ে কম; ক্ৰমে বাড়িয়া বাড়িয়া, বী-দিকে যেখানে ক্ষত শেষ হইয়াছে, সেখানে গভীরতা হইবে সবচেয়ে বেশী –কিন্তু, সকল সময়, গভীরতার এরপে তারতম্য পাওয়া যার না—তখন