পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


○も , গল্প-গ্রন্থাবলী দৈবজ্ঞ ঠাকুর আরও কিছুক্ষণ হস্তরেখা পরীক্ষা করিয়া বলিলেন, “বিবাহ ত একটিই দেখছি। আচ্ছা, এস ত মা, তোমার হাতখানি আর একবার দেখি !" जुश्रीला आजिन्ना, निछ बान्न झञ्७थान धजात्विज्र कीव्रम्ला क्णि। দৈবজ্ঞ ঠাকুর সেখানি লইয়া পরীক্ষা করিয়া বলিলেন, “মাঃ-আমার ভুল হয়নি। তুমিই তোমার স্বামীর সন্তানের জননী হবে, মা ! এ বিষয়ে কোনও সংশয় নেই।” অতঃপর দৈবজ্ঞ ঠাকুর দক্ষিগান্ত হইয়া প্রস্থান করিলেন। পলিন, তসর ছাড়িয়া নিজ সাবেক বস্ত্র পরিধান করিতেছিল, সশীলা তাহার কাছে গিয়া বলিল, “বলি হ্যাগা —দৈবজ্ঞ ঠাকুরকে কত টাকা ঘষে খাইয়েছ ?” ש পলিন বলিল “ঘষে ঘষে আমি কি জন্যে খাওয়াব?” “মইলে, আমার ২৫ বছর বয়স হল, এখনও আমি সন্তানের জননী হব বলে গেল কেন ?” পলিন বলিল, “বাং—সে আমি কি জানি ? আমি ত তোমায় সাক্ষ বলেছি আমি ও সব বজরাকি বিশ্বাস করিনে। তুমি নিজেই বল যে তোমার বিশ্বাস হয়;—এখন छूभि छान श्राव्र ८ठाभाब्रटेनदख्ठ ठेाकूद्रशें छाट्न-ञाभि कि छानि ?”-वलिग्ना ऋलिन वाशिद्ध হইয়া গেল। সুশীলা বসিয়া কিয়ৎক্ষণ ভাবিল। তারপর ডাকিল, “গেনির মা !” कि, शनिब्र श्रा आनिम्ना राजिल, “एकन क्रिान्नौघा ?” جمبر “তুই কাল দৈবজ্ঞ ঠাকুরকে ডাকতে গিয়েছিলি, কত্তা কি তা জানতে পেরেছেন ?" গেনির মা বিচ্ছিমত হইয়া বলিল, “কত্তা জানতে পেরেছেন ?—তা, কেমন করে বলবো মা ? ওঃ–হাঁ—মনে হয়েছে। ঠিক ত! কাল যখন আমি দৈবজ্ঞ ঠাকুরের বাড়ী থেকে বেরিয়ে রাস্তায় উঠেছি, সামনেই দেখি কত্তা মোশাই—নাঠি হাতে করে কোথা থেকে বেড়িয়ে আসছেন। আমায় দেখে জিজ্ঞাসা করলেন, কি গেনির মা, এখানে কি করতে এসেছিলি ? আমি মাথাটি নীচ করে বল্লাম, আজ্ঞে মাঠাকরণে দৈবজ্ঞ ঠাকুরকে ডেকে পাঠিয়েছেন, তাই বলতে এসেছিলাম।” সশীলা রক্টাবরে বলিল, “কই আমাকে ত এসে সে কথা তুই বলিসনি।" গেনির মা বলিল, “ভুলে গেছন মা—ভুলে গেছন। আর মা, এখন কি আর সব কথা মনে থাকে ছাই ! দশ গণ্ডাই হবে কি বিশ গণ্ডাই হবে বয়স হল, এখন তোমাদের রেখে যেতে পারলেই বাঁচ মা !” অতঃপর সশীলা, দৈবজ্ঞ ঠাকুরের দশম বৰ্ষীয় পোঁর উমাপদকে ডাকিয়া পাঠাইলেন। তাহাকে জিজ্ঞাসা করাতে সমস্ত কথাই সে প্রকাশ করিল। গতকল্য বিকালে জমিদারবাব তাহাদের গহে পদাপণ করিয়াছিলেন, এবং বৈঠকখানায় বসিয়া তাহার পিতামহের সহিত অনেকক্ষণ ধরিয়া কথাবাত্ত কহিয়াছেন, উপরন্তু উঠিবার সময় দশটি টাকা প্রণামী দিয়া আসিয়াছেন। * ~ * শুনিয়া সশীলা মনে মনে বলিল, “হু—সশীলা বামনী আবার জানে না কি ! কৈবল মরবে কবে তাই জানে না। আমার সঙ্গে এই চালবাজি। আচ্ছা আসকে মিন্সে दाप्लौब्र छिऊज्ञ !” সল্লীর পীড়াপীড়ি ও জেরায় পড়িয়া, অবশেষে “মিন্সে”কে স্বীকার করিতেই হইল যে ঘষে দিয়া মিথ্যা সাক্ষী সম্মিট করা রুপ দত্তকাষ" সে করিয়াছে এবং নাক কাণ মলিয়া প্রতিজ্ঞা করিল যে, এরপ কাৰ্য্য আর কখনও তাহার বারা হইবে না।