পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/৫০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8늘 १ठ्’-6ाब्धावलौ HBBDS0 DD DDS DD BBDD BBB BB BD DDBDuBB MDD DDBB পারছ না ।” “আমার বিভাবতী আবার কে ?—ওঃ বঝেছি।—তা, আমি তাকে এখানে আনবার জন্যে इछैशन्छे कब्रछि ट्राँभ किरन बकरल ?” “দুধের সাধ কি আর ঘোলে মেটে? ফটোগেরাপ বকে করে শয়ে থাকার চেয়ে, তাকে এখানে নিয়েই এস,—এসে সুখে রাজ্যি ভোগ কর। আমি তোমার আপদ বালাই, আমি দর হয়ে যাই।”—বলিয়া সশীলা ঝর ঝর করিয়া কাঁদিয়া ফেলিল। “७कि नदशौ छ् िझि-काँम ८कन ?” दलिग्ना शृठिन श° कर्गन्नग्ना उाशन्न झाउथानि ধরিল। সুশীলা সজোরে আপন হাত ছাড়াইয়া লইয়া, পশ্চাতে হটিয়া, গজন করিয়া উঠিল, “আমায় ছ:ও না বলছি খপন্দর্ণর।” “কেন ? তাতে দোষ কি ?” o “ষে স্বামী অন্য সীলোককে ছয়েছে, তাকে আমি ছতে চাইনে ! তাকে ছতে আমার ঘেন্না করে ।” পলিন বলিল, “ও৪—এই ব্যাপার। পশাঁদোষ ? তবে যে আগে তুমি বিয়ে করবার জন্যে আমায় অত পীড়াপীড়ি করতে ? এখন বিয়ে যদি করলাম, তায় আমার এত অপরাধ হল ?” সশীলা বলিল, “বিয়ে করতেই বলেছিলাম : তার ফটোগেরাপ বকে করে ঘামতে তোমায় বলিনি ত! সে সব কথা ছেড়ে দাও—যার যা আদলেট ছিল তাই হয়েছে। এখন আমার আর এখানে একদণ্ড থাকতে ইচ্ছে নেই—আমি বাপের বাড়ী যাব। তুমি যদি আমায় রেখে আসতে না পার, লল আমি অন্য উপায় দেখবে।” পলিন কিয়ৎক্ষণ গভীর হইয়া বসিয়া কি চিন্তা করিল। শেষে বলিল, “তা বেশ, তামিই রেখে আসবো এখন। বল কবে যেতে চাও।” “कालद्दे ।” “বেশ, উত্তম কথা। কালই তোমায় নিয়ে যাব। তোমার কিচ্ছ ভয় নেই—গাড়ীতে দু’জনে একটা তফাতে তফাতে বসলেই হবে,—পশদোষটা ঘটবে না।” ৷৷ সপ্তম পরিচ্ছেদ ॥

  • পবদিন পলিন, সুশীলকে লইয়া যাত্রা করিল। সশীলার পিরালয়ে যাইতে হইলে হাওড়া স্টেশনে নামিয়া শিয়ালদহে গিয়া আবার অন্য গাড়ীতে চড়িতে হয়। পর্বে পবে যখন পলিন সুশীলাকে লইয়া গিয়াছে, অথবা পিত্রালয় হইতে আনিয়াছে তখন এই সযোগে পথে কলিকাতায় ২১ দিন যাপন করিয়া, তাহাকে থিয়েটর সাকর্পস প্রভৃতি দেখাইত।

বেলা দশটাব সময় হাওড়ায় নামিয়া, পাব প্রথামত, পলিন সুশীলাকে লইয়া, "আবর্ণ আশ্রম” নামক বাঙ্গালী হোটেলে গিয়া উঠিল। পক্ষদর্শনশিনা সত্ৰীলোকগণের জন্যও সেখানে উত্তম বন্দোবস্ত আছে। আহারাদির পর উভয়ে বিশ্রামাথ পথক পৃথক শয্যায় শয়ন করিল। পলিন বলিল, “সুশী, শেষকালে তোমার মনে কি এই ছিল ?” সশীলা বিরক্তিভরে বলিল, “কি আবার ?” “তুমি আমায় এমন ভাবে ত্যাগ করবে জানলে কি আমি আবার বিয়ে করি ? এমন বিয়ে করে লাভ ?” “কিয় করে ত সুখী হয়েছ তুমি –সেই লাভ।"