পাতা:গীতবিতান.djvu/৪৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৩৫৯
প্রেম

আঁচল কাঁপে ধরার বুকে,  কী জানি তাহা সুখে না দুখে—
ধরিতে যাতে না পারে তারে স্বপনে দেখিছে কি।

লাগিল দোল জলে স্থলে,  জাগিল দোল বনে বনে—
সােহাগিনির হৃদয়তলে বিরহিণীর মনে মনে।
মধুর মােরে বিধুর করে  সুদূর কার বেণুর স্বরে,
নিখিল হিয়া কিসের তরে দুলিছে অকারণে।

আনো গাে আনো ভরিয়া ডালি করবীমালা লয়ে,
আনাে গাে আনাে সাজায়ে থালি কোমল কিশলয়ে।
এসাে গাে পীত বসনে সাজি,  কোলেতে বীণা উঠুক বাজি,
ধ্যানেতে আর গানেতে আজি যামিনী যাক বয়ে।

এসো গাে এসে দোলবিলাসী বাণীতে মাের দোলাে,
ছন্দে মাের চকিতে আসি মাতিয়ে তারে তােলাে।
অনেক দিন বুকের কাছে  রসের স্রোত থমকি আছে,
নাচিবে আজি তােমার নাচে সময় তারি হল।


২২১

তুমি  কোন্ ভাঙনের পথে এলে সুপ্তরাতে।
আমার  ভাঙল যা তা ধন্য হল চরণপাতে।
আমি  রাখব গেঁথে তারে রক্তমণির হারে,
বক্ষে দুলিবে গােপনে নিভৃত বেদনাতে।
তুমি  কোলে নিয়েছিলে সেতার, মীড় দিলে নিষ্ঠুর করে—
ছিন্ন যবে হল তার  ফেলে গেলে ভূমি-’পরে।
নীরব তাহারি গান  আমি  তাই জানি তােমারি দান—
ফেরে সে ফাল্গুন-হাওয়ায়-হাওয়ায় সুরহারা মূর্ছনাতে ।


২২২

আমি তােমার সঙ্গে বেঁধেছি আমার প্রাণ  সুরের বাঁধনে—
তুমি জান না, আমি তোমারে পেয়েছি  অজানা সাধনে।