পাতা:গীতরত্ন গ্রন্থঃ (১৮৭০)- রামনিধি গুপ্ত.djvu/৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিধি বাবু ১১৬৮ সালে সুখচর নামক গ্রামে প্রথম বিবাহ করেন। ১১৭৫ সালে সেই প্রথম স্ত্রীর গর্ভে এক সন্তান প্রসূত হয়, নবকুমারের মুখাবলোকন পুৰ্ব্বক বাবু বিস্তর উৎসাহ প্রকাশ করেন।

 অনন্তর যে সময়ে এই বঙ্গদেশে ইংরাজদিগের স্থির প্রভুত্ব হয় এবং যখন সাহেবেরা এই রাজ্যের ভিন্ন ভিন্ন অংশের রাজা ও ভূম্যধিকারিদিগের সহিত বন্দোবস্ত করেন সেই সময়ে নিধুবাবু নিজ পল্লীস্থ ৺ দেওয়ান রামতনু পালিত মহাশয়ের সহিত চিরণছাপরায় কৰ্ম্ম করিতে গমন করেন, তৎকালে জনাঞি গ্রামবাসী সুবিখ্যাত ৺ জগন্মোহন মুখোপাধ্যায় মহাশয় ছাপরার কালেক্টর মেং মোন্টগুমবি সাহেবের কেরাণির পদে অভিষিক্ত ছিলেন। রামতনু পালিত তথায় কিছু দিন দেওয়ানী কৰ্ম্ম করত বায়ু রোগে আক্রান্ত হইযা এক কালেই অকৰ্ম্মণ্য হইলেন, তখন পালিত বাবুর সহিত রামনিধি বাবু ব্যতীত দ্বিতীয় ব্যক্তি এমত কেহই ছিলেন না যিনি ঐ দেওয়ানী পদের যথার্থ উপযুক্ত পাত্র হয়েন। এই উপস্থিত ঘটনায় জগন্মোহন মুখোপাধ্যায় উক্ত দেওয়ানী কর্ম্মের নিমিত্ত অত্যন্ত লোলুপ হইলেন, কিন্তু মনে মনে এমত বিবেচনা করিলেন যে নিধুবাবু এখানে বৰ্ত্তমান থাকাতে এ কৰ্ম্মটি তিনি কোনমতেই প্রাপ্ত হইতে পারে না এ কারণ শঠতা ও ছলনাপুৰ্ব্বক একদিবস বাবুকে কহিলেন “আপনি কি ব্ৰহ্মহত্যা করিতে এখানে আসিয়াছেন,, ইহাতে বাবু বিস্ময়াপন্ন হইয়া উত্তর করিলেন “সে কি মহাশয় আমি ব্ৰহ্মহত্যা করিতে আসিয়াছি, এ কেমন কথা হইল ? অামি গো ব্রাহ্মণের সেবক ও রক্ষক, অতএব আপনি বিজ্ঞ হইয়া অামার প্রতি এমত অন্যায় উক্তি কেন করেন ? , তচ্ছ বণে মুখোপাধ্যায় কহিলেন “দেওয়ানী কৰ্ম্ম সাহেব আমাকে দিতে চাহেন কিন্তু তোমার বিদ্যা ও বুদ্ধি ও কর্ম্মদক্ষতা দেখিলে এ কৰ্ম্ম তোমাকেই দিবেন,