পাতা:গীতরত্ন গ্রন্থঃ (১৮৭০)- রামনিধি গুপ্ত.djvu/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
[ ৬০ ]

বেহাগ । তাল হরি । অহঙ্কার কারোপর করিব কে সহে । যে করিল সোঁহাগিনী, সেই বিনে আর কেহ নহে । জাপন নহে যে জন, তারে কিবা প্রয়োজন, সেই জন প্রিয়জন, সুখে সুখী দুখে দহে। ১ । ভাবনা রহিল যদি লেখালে ভাবনা রহিত না হই কেনে তার লোকে ৰলে ঐ ভাবন । তবে বুঝি এ ভাবনা, ভাবনা কেবল ভাবনা, সই ভাবনা । ভবে ভাবন অভাব, ভাব দেথি লে কি ভাব, ভাবি ভাবের ভাবনা, তবু না যায় ভাবনা, একি ভাবন ॥১ তোমারে কে জানে যে জানে প্রাণ সেই সে সুখী { তোমারে জানিতে, সাধ যাব চিতে, কদাচিতে নহে সে দুর্থী । তোমারে যে নাহি জানে, তারে কেহ নাহি জানে, জেনেছে যে জন, ভুলিতে কখন, সে কি পারে নাহিক দেথি । ১ । কোথরে চলিলে হে প্রাণ মন মানভরে । দুখের উপরে সুখ, দুখ দিয়ে মেরে । যদি অনেক দিনান্তে, পাইলেম প্রাণকান্তে, প্রাণ গৈলে নাহি কয়, বলনা কে করে । ১ । আপন ভাবিয়ে নাথ, অভিমানে কহি কত, ইথে এত বিপরীত, ভাবিলে অস্তরে }} ২ {