পাতা:গীতা-গ্রন্থাবলী (উপেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়).djvu/১৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয়োহধ্যায়ঃ। অৰ্জুন উবাচ। জ্ঞাত্বা সৰ্ব্বগতং ব্রহ্ম সৰ্ব্বজ্ঞং পরমেশ্ব ম্। অহং ত্ৰক্ষেতি নির্দেষ্ট: প্রমাণং তত্র কিং ভবেৎ। ১ । শ্ৰীভগবাম্বুবাচ। যথা জলে জলং ক্ষিপ্তং ক্ষীরে ক্ষীরং স্কৃতে স্মৃতম্। অবিশেষে ভবেৎ তত্ত্বে জীবাত্মপরমাত্মনোঃ ॥ ২ ॥ জীবে পরেণ তাদাত্ম্যং সৰ্ব্বগং জ্যোতিরীশ্বরঃ । প্রমাণলক্ষণৈজ্ঞেয়ং স্বয়মেকাগ্রবেদিনী ॥ ৩ ॥ অৰ্জুন উবাচ। জ্ঞানেনৈব ভবেঞ্জ জ্ঞেয়ং বিদিত্বা তৎক্ষণেন তু । জ্ঞানমাত্রেণ মুচ্যেত কিং পুনর্যোগধারণম্ ॥ ৪ ॥ জীবের যে ব্ৰহ্মলাভ হইয়া থাকে, তাহার প্রমাণ কি ? এই বিষয় জানিতে অভিলাষী হইয়া অৰ্জুন জিজ্ঞাসা করিলেন, হে মাধব ! সৰ্ব্বগত, সৰ্ব্বঞ্জ, পরমেশ্বব ব্ৰহ্মকে পরিজ্ঞাত হইয়া “আমিই সেই ব্রহ্ম, জীব যে এইরূপ জ্ঞান করে, তাহার প্রমাণ কি ? ১ ॥ ভগবান কহিলেন, হে ধনঞ্জয় । যেমন জলমধ্যে জল, দুগ্ধমধ্যে দুগ্ধ এবং বৃতমধ্যে ঘৃত নিক্ষেপ করিলে তাহা একত্রিত হইয়া যায়, সেইরূপ তত্ত্বজ্ঞানপ্রভাবে রাগাদি বিকারভাব বিনষ্ট হইয়া শুদ্ধিযুক্ত হইলে নিৰ্ব্বিকার পরমাআয়ার সহিত একতা জন্মিয় থাকে ॥ ২ ॥ তত্ত্বজ্ঞানী ব্ৰহ্মপরায়ণ সদগুরুর নিকট উপদেশ গ্রহণ পূর্বক তত্ত্বমসি প্রভৃতি মহাবাক্যার্থ-বিচার দ্বারা জীবে পরমাত্মার একতা জ্ঞান করিবে, তাহা হইলেই জ্যোতিৰ্ম্ময় চিদানন্দ স্বয়ং প্রকাশিত হইয়া থাকেন ॥ ৩ ॥ যদি ঐরুপ গুরূপদিষ্ট জ্ঞান দ্বারা অপরোক্ষানুভব হয়, তাহ হইলে যোগধারণার প্রয়োজন কি ? এই বিষয় জানিতে অভিলাষী হইয়া অৰ্জুন কহিলেন, হে কেশব ! যদি গুরুর উপদেশেই জ্ঞেষ বিষয় অবগত হওয়া যায় এবং তাহাতেই তত্ত্বজ্ঞান জন্মে আর তত্ত্বজ্ঞানমাত্রেই যদি মুক্তি হইল, তাহা হইলে মার যোগধারণাদি অভ্যাসের আবশ্বক কি ? এই সমস্ত বিস্তাররূপে কীৰ্ত্তন করুন। ৪ ।