পাতা:গীতা-গ্রন্থাবলী (উপেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়).djvu/৩১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শান্তি গীতা । סגס\ অভিমানাবৃতিমুখ্য তেনৈব স্বরূপাবৃতিঃ । পঞ্চকোষেধহস্কারঃ কর্তৃভাবেন রাজতে ॥ ১৭ ; ব্রহ্মবিত্ত্বাভিমানং যদ্ভবেদ্বিজ্ঞানসংজ্ঞিতে । অহঙ্কারস্ত তদ্ধৰ্ম্ম পিহিতে স্বরূপেহমলে ॥ ২৮ ॥ অতঃ সংত্যজ্য তদ্ভাবং কেবলং স্বরূপে স্থিতিম্। তত্ত্বজ্ঞানমিতি প্রাছর্যোগিনস্তত্ত্বদশিনঃ ॥ ২৯ ॥ অন্ধকারগৃহে শায়ী শরীরং তুলিকাবৃতমূ । দেহাদিকঞ্চ নাস্তীতি নিশ্চয়েন বিভাবয় ॥ ৩০ ॥ ন পশুদি তদা কিঞ্চিদবিভাতি সাক্ষি সৎস্বয়ম্। অহমৰ্ম্মীতিভাবেন চাত্ত: ক্ষুরতি কেবলম্ ॥ ৩১ ৷ নিঃশেষত্যক্তসংঘাত; কেবলঃ স্বরূপ: স্বয়মূ। অস্তি নাস্তি বুদ্ধিধর্শ্বে সৰ্ব্বাত্মন পরিত্যজেত্ব ॥ ৩২ ৷ ছেন। তিনি অক্ষর ( অবিনাশী ), অক্ষরাতীত, শব্দাতীত, নিরঞ্জন, তাহাই তোমার রূপ, অতএব নিজকে নিজের জানা অসম্ভব, সুতরাং ব্রহ্মের বা আত্মার জাতৃত্ব বোধ পরিত্যাগ কর। কারণ, অভিমানই মুখ্য আবরণ, তাহাতেই স্বরূপ আবৃত রহিয়াছে। অহঙ্কারই পঞ্চকোষে কর্তৃভাবে ৰিৱাজ করিতেছে ॥ ২৬-১৭ ॥ বিজ্ঞানময় কোষে ব্রহ্মবিত্ত্ব অর্থাৎ আমি ব্রহ্মজ্ঞ, এই বলিয়া ষে অভিমান, তাহা অহঙ্কারের ধৰ্ম্ম, তাহাতেই নিৰ্ম্মল আত্মরূপ আচ্ছাদিত হয়, অতএব সে ভাব পরিত্যাগ করিয়া কেবলমাত্র স্বরূপে যে স্থিতি, তাছাকেই তত্ত্বদশী ৰোগিগণ তত্ত্বজ্ঞান বলিয়া থাকেন ॥ ২৮-২৯ ॥ - ৰেমন লেপ-কঁথা দ্বারা আবৃত-শরীর অন্ধকার গৃহে শয়ান পুরুষের লেপ, কাখ,শরীর ইত্যাদি কিছুই দৃষ্টিগোচর হয় না, কেবল সন্মাত্র স্বয়ং সাক্ষিক্ষপে আছি, এই প্রকার অন্তরে স্ফূৰ্ত্তি পাইরা থাকে, তদ্রপ্র দেহাদি কিছুই নাই, কেৰল সন্মাত্র স্বয়ং সাক্ষিত্নপ আছি, এই প্রকার ভাবনা দ্বারা আপনার স্বরূপ নিশ্চয় কর ॥৩০-৩১ ॥ নিঃশেষে সংঘাত * সমূহ পরিত্যক্ত হইলে আর কিছুই থাকে না, কেবল স্বয়ং শব্বাচ্যরূপই অবশিষ্ট থাকে ॥ ৩২ ৷৷

  • দেহ, ইঞ্জিয়, মন, বুদ্ধি, চিত্ত ও অহঙ্কারাদি সকলের সমষ্টিকে সংঘাত ৰলে