পাতা:গোবিন্দ দাসের করচা.djvu/১৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোবিন্দ দাসের করচা br○ হাসিয়া চৈতন্ত বলে গুন মোর ভাই। আমারে মারিতে হৈলে হরিনাম চাই ॥ যত বার হরিনাম মুখে উচ্চারিবে । ততবার যষ্ঠ্যাঘাত করিতে পাইবে ॥ ক্রোধ করি যদি মোরে মারিবারে চাহ । তবে হরে কৃষ্ণ নাম বদনে বলহ ॥ এই দেথ পৃষ্ঠ পাতি দিলাম তোমারে । একবার হরি বলি মারহ আমারে ॥ পুনঃ এই কথা শুনি বিপ্রের তনয়। হাত জোড়ি প্রভূর সম্মুখে পুনঃ কয় ॥ শিশু বলে প্ৰভু ক্ষমা করহ পিতারে। নরক হইতে ত্রাণ করহ উহঁারে ॥ আপনার পাদপদ্মে এই ভিক্ষ চাই । লোকে যেন নাহি বলে নিঠুর নিমাই ৷ তবে তারে বলে প্রভু ঈষৎ হাসিয়া । জনম লইলে তুমি যে বংশে আসিয়া । সেই বংশে কাহারো নরক ভয় নাই । কোটি পুরুবের হবে বৈকুণ্ঠেতে ঠাই ৷ এত কহি ব্ৰাহ্মণের প্রতি তাকাইয়া । বলে বিপ্র হরি বল আমারে মারিয়া ॥ তোমার কঠিন হিয়া মরুস্থলী প্রায় । রসাল হউক আজি কৃষ্ণের কৃপায় ॥ মোরে মার তাহে বিপ্র কোন ক্ষতি নাই। একবার হরে কৃষ্ণ মুখে বল ভাই। শুনি হেন বাক্য বিপ্র কাদিয়া উঠিল । ভয়েতে প্রস্রাব বস্ত্রে করিয়া ফেলিল । ভয়ে জড় সড় বিপ্ৰ দেখিতে না পায়। আনন্দে আকুল হয়ে পড়িল ধরায় ॥ প্রভূর প্রভাবে বিপ্ৰ আকুল হইয়া । দুই হাতে দুই পদ ধরিল চাপিয়া ॥ বিপ্র বলে দয়াময় নিবেদি তোমারে । নরক হইতে ত্রাণ করহ আমারে ॥ অপরাধ করে বড় পাইয়াছি ভয় । কৃপা করি অপরাধ ক্ষম দয়াময় ॥ না বুঝিয়া কত কথা বলেছি তোমারে। দও দাও রক্ষণ কর যে হয় বিচারে ॥ ব্রাহ্মণের দৈন্ত দেখি গোরা বিনোদিয়া । হরিনাম সুধা কর্ণে দিলে ঢালিয় ॥ কৃতাৰ্থ হুইল বিপ্র শুদ্ধ হৈল মন । বিদায় লইল শেষে ধরিয়া চরণ ॥ পাষণ্ড ব্রাহ্মণে প্রভু করিয়া উদ্ধার । ঋষিকূল্য নদীতীরে হৈল আগুসার । নদীর উভয় তীবে বহু ঋষি থাকে। সবে মিলি অভ্যর্থনা করিল গোরাকে ॥ যবে প্রভু ঋষিকূল্য নদীতে আইল । এই বাৰ্ত্ত ক্রমে গিয়া পুরীতে পৌছিলা । তিন রাত্রি থাকি প্রভু ঋষিকূল ধামে। ঋষিকুল্য পবিত্র করিলা হরিনামে । তালালনাথের কাছে প্রভু ঘবে আসে। * গদাধব মুরারি ছুটিয়া আইল পাশে । খঞ্জন আচাৰ্য্য আসে গাঢ় অনুরাগে । খোড় বটে তবু আইসে সকলের আগে ॥ সাৰ্ব্বভৌম আসে দুই ডঙ্কা বাজাইয়া । নরহরি দেখা দেয় নিশান লইয়া ॥

  • চৈতষ্ঠচরিতামৃতেও আছে যে আলালনাথে সংবাদ পাইরা পরিকরেরা আসিয়া জুটিয়াছিলেন। জগদাননা দামোদর পণ্ডিত মুকুন্ম । নাচিয়া চলিল দেহে না ধরে আনন্দ ॥ গোপীনাথাচার্য্য চলে আনন্দিত হঞ । প্রভুরে মিলিল সবে পথে নাগ পাঞ । প্রেমাবেশে সব কৈল আলিঙ্গন। প্রেমাবেশে সবে করে আনন্দে কীৰ্ত্তন ॥ সাৰ্ব্বভৌম ভটাচর্য্যে আনন্দে চলিলা ।

সমুদ্রের তীরে আসি প্রভুরে মিলিলা ॥ או צן אט3 :t* זיא ג{8}ל --سائنس ----- مہم سمسم-مہ--سمب۔------ س -