পাতা:গৌড়রাজমালা.djvu/৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
গৌড়াধিপ শশাঙ্ক।

এই সেনা লইয়া, হৰ্ষবর্দ্ধন গৌড়সাম্রাজা আক্রমণ করিয়াছিলেন। ইউয়ান্ চোয়াং লিখিয়াছেন,—“(হর্ষবর্দ্ধন) পূর্ব্বদিকে অগ্রসর হইয়া, যে সকল রাজ্য তাঁহার অধীনতা স্বীকার করিতে অস্বীকৃত হইয়াছিল, সেই সকল রাজ্য আক্রমণ করিয়াছিলেন; এবং অবিরত যুদ্ধে ব্যাপৃত থাকিয়া, ছয় বৎসরের মধ্যে, ‘পঞ্চ-ভারতের’ (Five Indias) সহিত যুদ্ধ করিয়াছিলেন। তৎপর স্বরাজ্যের পরিসর বিস্তৃত করিয়া, সেনাবল বৃদ্ধি করিয়াছিলেন। ৬০০০০ হস্তী এবং ১০০০০০ অশ্বারোহী সংগৃহীত হইয়াছিল। তিনি অতঃপর আর অস্ত্রধারণ না করিয়া, নির্ব্বিরোধে ৩০ বৎসর রাজত্ব করিয়াছিলেন।”[১] ইউয়ান্ চোয়াংএর অন্যতম অনুবাদক টমাস্ ওয়াটার্স লিখিয়াছেন, এই অংশে পাঠান্তর দৃষ্ট হয়। এক রূপ পাঠানুযায়ী অনুবাদ এস্থলে প্রদত্ত হইল। আর এক রূপ পাঠানুসারে অর্থ হয়,—হৰ্ষবর্দ্ধন ছয় বৎসর যুদ্ধ করিয়া, “‘পঞ্চ-ভারত’ স্বীয় বশবর্ত্তী করিয়াছিলেন।” “পঞ্চ-ভারত” অর্থ যাহাই হউক, হৰ্ষবর্দ্ধন যে ছয় বৎসর কাল অবিরত যুদ্ধ করিয়াও, গৌড়াধিপের বিশেষ ক্ষতি করিতে পারেন নাই, তাহার প্রমাণ পাওয়া যায়। কলিঙ্গের শৈলোদ্ভব-বংশীয় মহাসামন্ত মাধবরাজের ৩০০ চলিত গৌপ্তাব্দে [৬১৯ খৃষ্টাব্দে] সম্পাদিত তাম্রশাসনে “মহারাজাধিরাজ” শশাঙ্ক “চতুরুদধি-সলিল-বীচি-মেখলা-নিলীন-সদ্বীপ-গিরিপত্তনবতী-বসুন্ধরার” অধীশ্বর বলিয়া উল্লিখিত হইয়াছেন।[২]

 ছয় বৎসর ব্যাপী যুদ্ধের পরও যে গৌড়াধিপ শশাঙ্ক শান্তিভোগে সমর্থ হইয়াছিলেন, এরূপ মনে হয় না। ইউয়ান্ চোয়াং লিখিয়াছেন,—তিনি কুশীনগর প্রদেশ হইতে বৌদ্ধ-শ্রমণগণকে বিদূরিত করিয়া দিয়াছিলেন; পাটলিপুত্রের বুদ্ধ-পদচিহ্নবিশিষ্ট প্রস্তর ভাঙ্গিয়া ফেলিতে, এবং তাহাতে বিফলকাম হইয়া, গঙ্গাগর্ভে ডুবাইয়া দিতে যত্ন করিয়াছিলেন; বুদ্ধগয়ার বোধিবৃক্ষ উন্মূলিত এবং আশ্রম সমূহ ধ্বংস করিয়াছিলেন; বোধিবৃক্ষের নিকট একটি বিহারে প্রতিষ্ঠিত বুদ্ধ-মূর্ত্তি ধ্বংস করিয়া, শিব-মূর্ত্তি স্থাপন করিতে আদেশ দিয়াছিলেন। শশাঙ্ক যে কর্ম্মচারীর উপর শেষোক্ত ভার অর্পণ করিয়াছিলেন, তিনি বুদ্ধ-মূর্ত্তিতে হস্তক্ষেপ করিতে সাহস না পাইয়া, মূর্ত্তির সম্মুখে একটি প্রাচীর নির্ম্মাণ করিয়া, উহাকে একেবারে ঢাকিয়া ফেলিয়া, প্রাচীর গাত্রে শিব-মূর্ত্তি অঙ্কিত করিয়া দিয়াছিলেন। ইউয়ান্ চোয়াং লিখিয়াছেন—এই ঘটনার পর শশাঙ্ক আতঙ্কে অভিভূত হইয়া পড়িয়াছিলেন। তাঁহার শরীরে বহুসংখ্যক ক্ষত প্রকাশ পাইয়াছিল; এবং

  1. “Proceeding eastwards he invaded the states which had refused allegiance, and waged incessant warfare until in six years he had fought the five Indias (reading chi according to the other reading chen, had brought the five Indias under allegiance). Then having enlarged his territory he increased his army, bringing the elephant corps up to 60,000 and the cavalry to 100, 000, and reigned in peace for thirty years without raising a weapon.
     Watters On Yuang Chwang’s Travels in India 629-645 V. S. (London, 1904), Vol. I. P. 343.
  2. Epigraphia Indica, Vol. VI. P. 143.

১১