পাতা:ঘুসখোরি বুদ্ধি.pdf/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

১৬

দারোগার দপ্তর ৯২ম সংখ্যা।


কর্ম্মচারী। আচ্ছা আমি আমার মনিবকে একবার জিজ্ঞাসা করিয়া দেখি, যদি তিনি অত অর্থ প্রদানে সম্মত হন, তাহা হইলে আমার আর আপত্তি কি? আপনি তাহাই পাইবেন।
দারোগা। কেবলমাত্র আমাকে অর্থ প্রদান করিলেই যে চলিবে তাহা নহে। আমি আপনাদিগকে যেরূপ ভাবে কার্য্য করিতে বলিব, তাহাই আপনাদিগকে করিতে হইবে।
কর্ম্মচারী। তাহা ত নিশ্চয়, আপনার কথার অবাধ্য হইয়া আমরা কিরূপে চলিতে পারি। আমাদিগকে কিরূপে চলিতে হইবে, তাহা বলিয়া দিন, আমরা সেইরূপ ভাবে কার্য্য করিতে আরম্ভ করি।
দারোগা। আপনি অগ্রে আপনার মনিবের সহিত বন্দোবস্ত করিয়া এদিকের বিষয়টা ঠিক করিয়া আসুন, তাহার পর যাহা করিতে হয়, তাহা আপনাকে বলিয়া দিব।
কর্ম্মচারী। এদিকের বিষর একরূপ স্থিরই জানিবেন, মনিবকে আমি যাহা কহিব, তাহাতেই তাঁহাকে অভিমত প্রদান করিতে হইবে। আচ্ছা, আমি এখন চলিলাম্‌, কল্য আসিয়া আপনার সহিত সাক্ষাৎ করিব।

 এই বলিক কর্ম্মচারী মহাশয়, সেইদিবস সেই স্থান হইতে প্রস্থান করিলেন, ও পরদিবস প্রত্যূষে পুনরায় আগমন করিয়া, দারোগা বাবুর সহিত সাক্ষাৎ-পূর্ব্বক তাঁহার হস্তে একবারে পাঁচশত টাকার নোট প্রদান করিয়া কহিলেন, “আমি আমার মনিবকে বলিয়া সমস্তই স্থির করিয়া আসিয়াছি, তিনি আপনার প্রস্তাবে সম্মত হইয়াছেন। আপাততঃ পাঁচশত টাকা প্রেরণ করিয়াছেন, অবশিষ্ট পাঁচশত টাকা যেদিবস দাঙ্গা হইবে, সেইদিবস প্রদান