পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


మbr চয়নিক সোহাগ-তরঙ্গরাশি অজখানি দিবে গ্রাসি’, উচ্ছ্বসি’ পড়িবে আসি উরসে গলে । ঘুরে ফিরে চারিপাশে • কন্তু কাদে কভু হাসে, কুলুকুলু কলভাষে কত কী ছলে । যদি গাহন করিতে চাহ, এসো নেমে এসো হেথা গহন-তলে । যদি মরণ লভিতে চাও, এসে তবে ঝাপ দাও সলিল-মাঝে । স্নিগ্ধ, শাস্তু, সুগভীর, নাহি তল, নাহি তীর, মৃত্যুসম নীল নীর স্থির বিরাজে । নাহি রাত্রি দিনমান, আদি অস্ত পরিমাণ, সে অতলে গীতগান কিছু না বাজে । যাও সব যাও ভূলে’ নিখিল বন্ধন খুলে’ ফেলে দিয়ে এসে কুলে সকল কাজে । যদি মরণ লভিতে চাও, এসে তবে ঝাপ দা ও সলিল-মাঝে । ( ১১ আষাঢ়, ১৩০ s ) —সোনার তরী বসুন্ধর আমারে ফিরায়ে লহ, আমি বসুদ্ধরে, কোলের সস্তানে তব কোলের ভিতরে, বিপুল অঞ্চলতলে । ওগো মা মুন্ময়ি, তোমার মৃত্তিক-মাঝে ব্যাপ্ত হয়ে রই ;