পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


والا S চয়নিক ബ= সন্ধ্যা ক্ষান্ত হও, ধীরে কও কথ। । ওরে মন, নত করে শির । দিবা হোলো সমাপন, সন্ধ্যা অণসে শান্তিময়ী । তিমিরের তীরে অসংখ্য প্রদীপ-জালা এ বিশ্বমন্দিরে এল আরতির বেলা । ওই শুন বাজে নিঃশব্দ গম্ভীর মন্দ্রে অনস্তের মাঝে শঙ্খ ঘণ্টাধ্বনি । ধীরে নামা ইয়া আনো বিদ্রোহের উচ্চ কণ্ঠ পুর বীর স্নানমন্দ স্বরে । রাখে। রাখে। অভিযোগ তব,মেীন করে বাসনার নিত্য নব নব নিস্ফল বিলাপ । হেরো, মৌন নভস্তল, ছায়াচ্ছন্ন মৌন বন, মৌন জলস্থল, স্তম্ভিত বিষাদে নম্র । নির্বাক নীরব দাড়াইয়া সন্ধ্যাসতী,—নয়নপল্লব নত হয়ে ঢাকে তার নয়ন যুগল,— অনন্ত অণকাশপূর্ণ অশ্র ছলছল করিয়া গোপন । বিষাদের মহাশাস্তি ক্লাস্ত ভুবনের ভালে করিছে একাস্তে সাস্তুন পরশ । আজি এই শুভক্ষণে, শাস্ত মনে, সন্ধি করে আনস্তের সনে সন্ধ্যার অালোকে । বিন্দু দুই অশ্র জলে দাও উপহার—অসীমের পদতলে জীবনের স্মৃতি । অস্তরের যত কথা শাস্ত হয়ে গিয়ে—মর্মাস্তিক নীরবতা করুক বিস্তার ।