পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক । .نیم বলিতেছিলাম বসি’ এক-ধারে আণপনার কথা আণপন জনারে, শুনাতেছিলাম ঘরের জুয়ারে ঘরের কাহিনী যত ; তুমি সে-ভাষারে দহিয়া অনলে, ডুবায়ে ভাসায়ে নয়নের জলে, নবীন প্রতিমা নব কৌশলে গড়িলে মনের মতো । সে মায়ামুরতি কী কহিছে বাণী, কোথাকার ভাব কোথা নিলে টানি’, অামি চেয়ে অাছি বিস্ময় মানি’ _ রহস্তে নিমগন । এ-ঘে সংগীত কোথা হতে উঠে, এ-ঘে লাবণ্য কোথা হতে ফুটে, এ -মে ক্ৰন্দন কোথা হতে টুটে অস্তর-লিঙ্গারণ | নুতন ছন্দ অন্ধের প্রায় ভরা আনন্দে ছুটে চলে যায়, মৃতন বেদনা বেজে উঠে তায় নূতন রাগিণীভরে । যে-কথা ভাবিনি বলি সেই কথা, যে-ব্যথা বুঝি না জাগে সেই ব্যথা, জানি না এসেছি কাহার বারতা কারে শুনাবার তরে }