পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


وقت لا চয়নিক বহে না পবন, নাই কোলাহল, বাজিছে নীরব বীণা ৷ অচল অালোকে রয়েছ দাড়ায়ে, কিরণ-বসন অঙ্গ জড়ায়ে, চরণের তলে পড়িছে গড়ায়ে ছড়ায়ে বিবিধভঙ্গে । গন্ধ তোমার ঘিরে চারিধার, উড়িছে আকুল কুন্তলভার, নিখিল গগন কঁাপিছে তোমার পরশ-রস-তরঙ্গে । হাসি-মাথা তব আনত দৃষ্টি আমারে করিছে নূতন স্থষ্টি, অঙ্গে অঙ্গে অমৃত-বৃষ্টি বরষি’ করুণাভরে । নিবিড় গভীর প্ৰেম আনন্দ বাহুবন্ধনে করেছ বন্ধ, মুগ্ধ নয়ন হয়েছে অন্ধ অশ্র-বাষ্প-থরে । নাহিক অর্থ, নাহিক তত্ত্ব, নাহিক মিথ্যা, নাহিক সত্য, আপনার মাঝে আপনি মত্ত,— দেখিয়া হাসিবে বুঝি । আমি হতে তুমি বাহিরে আসিবে, ফিরিতে হবে না খুজি ॥