পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


›ግö চয়নিক পার হয়ে এই ঠাই আসিব যখন জেগে উঠিবে না কোনো গভীর চেতন ? জন্মাস্তরে শতবার যে-নির্জন তীরে গোপনে হৃদয় মোর আসিত বাহিরে,— আর বার সেই তীরে সে-সন্ধ্যাবেলায় হবে না কি দেখা শুনা তোমায় আমায় । ( ২৫ চৈত্র, ১৩০৩ ) —চৈতালি । বঙ্গমাত পুণ্যপাপে দুঃখে সুখে পতনে উত্থানে মানুষ হইতে দাও তোমার সস্তানে হে স্নেহাত বঙ্গভূমি, তব গৃহক্রোড়ে চিরশিশু ক’রে আর রাখিয়ো না ধ'রে । দেশদেশান্তর মাঝে যার যেথা স্থান খুজিয়া লইতে দাও করিয়া সন্ধান । পদে পদে ছোট ছোট নিষেধের ভোরে বেঁধে বেঁধে রাখিয়ে না ভালো ছেলে ক’রে । প্রাণ দিয়ে, দুঃখ সয়ে, আপনার হাতে সংগ্রাম করিতে দাও ভালোমন্দ সাথে । শীর্ণ শান্ত সাধু তব পুত্রদের ধ’রে । দাও সবে গৃহছাড়া লক্ষীছাড়া ক’রে । সাত কোটি সস্তানেরে, হে মুগ্ধ জননী, রেখেছ বাঙালি ক’রে, মায়ুব করে নি । ( ২৬ চৈত্র, ১৩০২ ) —চৈতালি