পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৮৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক। ר "ט צ কোথারে সে তীর ফুল-পল্লব-পুঞ্জিত, কোথারে সে নীড়, কোথা আশ্রয়-শাখা । তবু বিহঙ্গ, ওরে বিহঙ্গ মোর, এখনি, অন্ধ, বন্ধ কোরো ন পাখা ॥ এখনো সমুথে রয়েছে হুচির শর্বরী, ঘুমায় অরুণ সুদূর অস্ত আচলে ; বিশ্ব-জগৎ নিশ্বাসবায়ু সম্বরি’ স্তব্ধ আসনে প্রহর গনিছে বিরলে ; সবে দেখা দিল আকুল তিমির সপ্তরি’ দুর দিগন্তে ক্ষীণ শশাঙ্ক বাকা ; ওরে বিহঙ্গ, ওরে বিহঙ্গ মোর, এখনি, অন্ধ, বন্ধ কোরো না পাখী ॥ উধ্ব আকাশে তারাগুলি মেলি আঙ্গুলি ইঙ্গিত করি তোমা-পানে আছে চাহিয়া । নিম্নে গভীর অধীর মরণ উচ্ছলি শত তরঙ্গে তোমা-পানে উঠে ধাইয়া , বহুদুর তীরে কা'র ডাকে বাধি’ অঞ্জলি এসে এসে স্বরে করুণ মিনতি-মাখ ; ওরে বিহঙ্গ, ওরে বিহঙ্গ মোর, এখনি, অন্ধ, বন্ধ কোরো না পাখী ॥ ওরে ভয় নাই, নাই স্নেহ-মোহবন্ধন, ওরে আশা নাই, আশ শুধু মিছে ছলনা । ওরে ভাষা নাই, নাই বৃথা ব'সে ক্রন্দন, ওরে গৃহ নাই, নাই ফুল-শেজ-রচনা ।