পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

চয়নিকা

১৭৫

বৃথা কাজে যেন অন্যমনে
খেলাচ্ছলে লহ তুলি’ তুলি’,
তব ওষ্ঠে দশন-দংশনে
টুটে যাক পূর্ণ ফলগুলি॥
আজি মোর দ্রাক্ষাকুঞ্জবনে
গুঞ্জরিছে ভ্রমর চঞ্চল।
সারাদিন অশান্ত বাতাস
ফেলিতেছে মর্মর নিঃশ্বাস,
বনের বুকের আন্দোলনে
কাঁপিতেছে পল্লব-অঞ্চল।
আজি মোর দ্রাক্ষাকুঞ্জবনে
পুঞ্জ পুঞ্জ ধরিয়াছে ফল॥

— চৈতালি

১৩ চৈত্র, ১৩০২


দেবতার বিদায়

দেবতা-মন্দিরমাঝে ভকত প্রবীণ
জপিতেছে জপমালা বসি’ নিশিদিন।
হেনকালে সন্ধ্যাবেলা ধুলিমাখা দেহে
বস্ত্রহীন জীর্ণ দীন পশিল সে-গেহে।
কহিল কাতর কণ্ঠে—“গৃহ মোর নাই,
এক পাশে দয়া ক’রে দেহ মোরে ঠাই।”