পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ध्ग्रनिको నవ থাক তব বিকি-কিনি ওগো শ্রাস্ত পসারিনী, এইখানে বিছা ও অঞ্চল । ব্যথিত চরণ দুটি ধুয়ে নিবে জলে, বনফুলে মালা গাথি’ পরি’ নিবে গলে । আম্রমঞ্জরীর গন্ধ . বহি’ আনি মুদুমন্দ বায়ু তব উড়াবে অলক, ঘুঘু-ডাকে ঝিল্লী-রবে কী মন্ত্র শ্রবণে ক’বে, মুদে যাবে চোখের পলক । পসর নামায়ে ভমে যদি ঢুলে পড়ে ঘুমে, অঙ্গে লাগে সুগালসঘোর ; যদি ভুলে তন্দ্রাভরে ঘোমটা খসিয়া পড়ে, তাহে কোনো শঙ্কা নাহি তোর ॥ যদি সন্ধ্যা হয়ে আসে, সূর্ব যায় পাটে, পথ নাহি দেখা যায় জনশূন্য মাঠে, নাই গেলে বহুদূরে, বিদেশের রাজপুরে, নাই গেলে রতনের হাটে । কিছু না করিয়ো ডর, কাছে অাছে মোর ঘর, পথ দেখাইয়া যাব আগে ; শশীহীন অন্ধ রাত, ধরিয়ো আমার হাত, যদি মনে বড় ভয় লাগে । শয্যা শুভ্ৰফেননিভ স্বহস্তে পাতিয়া দিব, গৃহকোণে দীপ দিব জালি’, . দুগ্ধ-দোহনের রবে কোকিল জাগিবে যবে আপনি জাগায়ে দিব কালি ॥