পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२२br. চয়নিকা সেই সত্য হোলো। সে-যে মিথ্যা কতদূর তখনি শুনে কি তুমি বোঝোনি ঠাকুর । শুধু কি মুখের বাক্য শুনেছ দেবতা, শোনোনি কি জননীর অন্তরের কথা ।” বলিতে বলিতে যত মিলি মাঝি দাড়ি বল করি’ রাখালেরে নিল ছিড়ি কাড়ি' भांब्र दक श्रङ । 8भज़ भूनि छूझे चैथि ফিরায়ে রহিল মুখ কানে হাত ঢাকি দন্তে দন্ত চাপি বলে । কে তারে সহসা মর্মে মৰ্মে আঘাতিল বিদ্যুতের কশা দংশিল বৃশ্চিক-দংশ —“মাসি, মাসি, মাসি" বিন্ধিল বহ্নির শলা রুদ্ধ কর্ণে আসি’ নিরুপায় অনাথের অস্তিমের ডাক । চীংকারি’ উঠিল বিপ্ৰ—“রাখ, রাখ রাখ।" চকিতে হেরিল চাহি মূছি’ আছে পড়ে মোক্ষদা চরণে র্তার। মুহূতের তরে ফুটন্ত তরঙ্গ মাঝে মেলি আর্ত চোখ "মাসি" বলি ফুকারিয়া মিলাল বালক অনন্ত তিমির-তলে —শুধু ক্ষীণ মুঠি বারেক ব্যাকুলবলে উধ্ব পানে উঠি” আকাশে আশ্রয় খুজি ডুবিল হতাশে । “ফিরায়ে আনিব তোরে”, কহি’ উধ্বশ্বাসে ব্রাহ্মণ মুহূত মাঝে ঝাপ দিল জলে, আর উঠিল না। সূর্য গেল অস্তাচলে । ( ১৩ই কাতিক, ১৩০৪ ) —কথা ও কাহিনী