পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ع\ চয়মিকা কেশ এলাইয়া, ফুল কুড়াইয়া, রামধন্থ-আঁকা পাখা উড়াইয়া, রবির কিরণে হাসি ছড়াইয়া, দিব রে পরান ঢালি’ । শিখর হইতে শিখরে ছুটিৰ, ভূধর হইতে ভূধরে লুটিব, হেসে থল খল, গেয়ে কল কল, তালে তালে দিব তালি । তটিনী হইয়া যাইব বহিয়— নব নব দেশে বারতা লইয়া, হৃদয়ের কথা কহিয়া কহিয়া, গাহিয়া গাহিয়া গান, বত দেব প্রাণ বহে ষাবে প্রাণ, ফুরাবে না আর প্রাণ । এত কথা আছে, এত গান আছে, এত প্রাণ অাছে মোর, এত সুখ আছে, এত সাধ আছে, প্রাণ হয়ে আছে ভোর । মেঘ-গরজনে বরষা আসিবে, মদির নয়নে বসস্ত হাসিবে, কুলে কুলে মোর ফুটিবে হাসি, বিকশিত কাশ-কুস্থম-রাশি । দূরে দূরে কছু বাজিবে বাশি, মুরছি পড়িবে মলয় বায় । দুরু দুরু মোর দুলিবে হিয়া শিহরিয়া মোর উঠিবে কায় । ৪রে অগাধ বাসনা, অসীম আশা জগৎ দেখিতে চাই,