পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

চয়নিকা

যত দেব প্রাণ বহে যাবে প্রাণ, 
ফুরাবে না আর প্রাণ।
এত কথা আছে, এত গান আছে, 
এত প্রাণ আছে মোর,
এত সুখ আছে, এত সাধ আছে, 
প্রাণ হয়ে আছে ভোর।
মেঘ-গরঙ্গনে বরষা আসিবে,
মদির নয়নে বসন্ত হাসিবে,
কূলে কূলে মোর ফুটিবে হাসি,
বিকশিত কাশ-কুসুম-রাশি।
দূরে দূরে কভু বাজিবে বাঁশি,
মুরছি পড়িবে মলয় বায়।
দুরু দুরু মোর দুলিবে হিয়া
শিহরিয়া মোর উঠিবে কায়।
ওরে অগাধ বাসনা, অসীম আশা 
জগৎ দেখিতে চাই,
জাগিয়াছে সাধ চরাচরময়, 
প্লাবিয়া বহিয়া যাই।
যত প্রাণ আছে ঢালিতে পারি, 
যত কাল আছে বহিতে পারি, 
যত দেশ আছে ডুবাতে পারি, 
তবে আর কী-বা চাই, 
পরানের সাধ তাই। 

কী জানি কী হোলো আজি, জাগিয়া উঠিল প্রাণ, 
দূর হতে শুনি যেন মহাসাগরের গান। 
ডাকে যেন—ডাকে যেন—সিন্ধু মোরে ডাকে যেন। 
আজি চারিদিকে মোর কেন কারাগার হেন।