পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


कब्रनिक জাগিয়াছে সাধ চরাচরময়, প্লাবিয়া বহিয়া যাই । যত প্রাণ অাছে ঢালিতে পারি, যত কাল আছে বহিতে পারি, যত দেশ আছে ডুবাতে পারি, তবে আর কী-ব’ চাই, পরাণের সাধ তাই । কী জানি কী হোলো আজি, জাগিয়া উঠিল প্ৰাণ, দূর হতে শুনি যেন মহাসাগরের গান । ডাকে যেন—ডাকে যেন—সিন্ধু মোরে ডাকে যেন । আজি চারিদিকে মোর কেন কারাগার হেন । ওষ্ট-খে হৃদয় মোর আহ্বান শুনিতে পায়, কে আসিবি, কে জাসিবি, তোরা কে আসিবি আয় পাষাণ বাধন টুটি', ভিজায়ে কঠিন ধরা, বলেরে স্বামল করি’, ফুলেরে ফুটায়ে ত্বর, সারা প্রাণ ঢালি’ দিয়া, জুড়ায়ে জগং-হিয়া আমার প্রাণের মাঝে কে আসিবি জায় তোরা । আমি যাব।— আমি যাব—কোথায় সে, কোন দেশ– জগতে ঢালিব প্রাণ, গাহিব করুণা গান ; উদ্বেগ-অধীর হিয়া স্বদুর সমুদ্রে গিয়া সে প্রাণ মিশাব, আর সে-গান করিব শেষ । ওরে চারিদিকে মোর, এ কী কারাগার ঘোর, *