পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক আকাশ পানে হানি’ যুগল ভুরু শুনলে বারেক মেঘের গুরু গুরু । কালো ? তা সে যতই কালে হোক দেখেছি তার কালে। হরিণ-চোখ ॥ পুবে বাতাস এল হঠাৎ ধেয়ে, ধানের খেতে খেলিয়ে গেল ঢেউ । অালের ধারে দাড়িয়েছিলেম এক, মাঠের মাঝে আর ছিল না কেউ । আমার পানে দেখলে কি না চেয়ে * আমিই জানি আর জানে সেই মেয়ে । কালো ? তা সে যতই কালো হোক দেখেছি তার কালো হরিণ-চোখ ॥ এমনি ক’রে কালে কাজল মেঘ জ্যৈষ্ঠ মাসে আসে ঈশান কোণে । এমনি করে কালো কোমল ছায়া আষাঢ় মাসে নামে তমাল বনে । এমনি ক’রে প্রাবণ-রজনীতে হঠাৎ খুশি ঘনিয়ে আসে চিতে । কালো ? তা সে যতই কালে হোক দেখেছি তা’র কালো হরিণ-চোখ ॥ কৃষ্ণকলি আমি তারেই বলি, আর যা বলে বলুক অস্ত লোক । দেখেছিলেম ময়না পাড়ার মাঠে কালো মেয়ের কালো হরিণ-চোখ । S4 రి