পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৫৬ ( ১৩০৬ ) চয়নিক কে জানিত সেই ক্ষণিকা মুরতি দূরে করি দিবে বরষন, মিলাবে চপল দরশন। কে জানিত মোরে এত দিবে লাজ । তোমার যোগ্য করি নাই সাজ । বাসর ঘরের দুয়ারে করালে পূজার অর্ঘ্য বিরচন ; এ কী রূপে দিলে দরশন ॥ ক্ষমা করে। তবে ক্ষমা করে। মোর আয়োজন-হীন পরমাদ ; ক্ষমা করে যত অপরাধ । এই ক্ষণিকের পাতার কুটীরে প্রদীপ-আলোকে এসে ধীরে ধীরে, বন-বেতসের বাশিতে পড় ক তব নয়নের পরসাদ ; ক্ষমা করে যত অপরাধ ॥ আসো নাই তুমি নব ফান্ধনে ছিন্ত যবে তব ভরসায় ; এসে এসে ভরা বরষায় । এসে গো গগনে আঁচল লুটায়ে, এসে গো সকল স্বপন ছুটায়ে, এ পরান ভরি’ যে-গান বাজাবে সে-গান তোমার করে সায় আজি জলভরা বরযায় ॥ —ক্ষণিক ।