পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२७२ ( ১৩৪ ৭ ) ( ১৩০৭ ) झग्नमिक ইন্দ্রিয়ের দ্বার রুদ্ধ করি' যোগাসন, সে নহে আমার । যা-কিছু আনন্দ আছে দৃশ্বে গন্ধে গানে তোমার আনন্দ র”বে তার মাঝখানে । মোহ মোর মুক্তিরূপে উঠিবে জলিয়া, প্রেম মোর ভক্তিরূপে রঙ্কিবে ফলিয় ॥ —নৈবেদ্য । /স্তব্ধতা আজি হেমস্তের শাস্তি ব্যাপ্ত চরাচরে । জনশূন্য ক্ষেত্রমাঝে দীপ্ত দ্বিপ্রহরে, শব্দহীন গতিহীন স্তব্ধতা উদার রয়েছে পড়িয়া শ্রাস্ত দিগন্তপ্রসার স্বর্ণগ্রাম ডান মেলি' । ক্ষীণ নদীরেখা নাহি করে গান আজি, নাহি লেগে লেপ বালুকার তটে। দূরে দূরে পল্লী যত মুদ্রিত নয়নে রৌদ্র পোহাইতে রত নিদ্রায় অলস ক্লাস্ত। এই স্তব্ধতায় শুনিতেছি তৃণে তৃণে ধুলায় ধুলায়, মোর আঙ্গে রোমে রোমে, লোকে লোকান্তরে গ্রহে সূর্যে তারকায় নিত্যকাল ধ’রে অণু পরমাণুদের নৃত্যকলরোল, তোমার আসন ঘেরি অনন্ত কল্লোল ॥ —নৈবেদ্য ।