পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৮১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক ২৭ঃ মুখর দিনের চপলতা মাঝে স্থির হয়ে তুমি রও। হে অতীত, তুমি গোপনে হৃদয়ে কথা কও, কথা কও ৷ কথা কও, কথা কও । কোনো কথা কভু হারাওনি তুমি সব তুমি তুলে লও,— কথা কও, কথা কও । তুমি জীবনের পাতায় পাতায় অদৃশ্ব লিপি দিয়া পিতামহদের কাহিনী লিখিছ মজ্জায় মিশাইয়া । যাহাদের কথা ভুলেছে সবাই তুমি তাহাদের কিছু ভোলো নাই বিস্তৃত যত নীরব কাহিনী স্তম্ভিত হয়ে বও । ভাম দা ৪ তা’রে, ঙ্গে মুনি অতীত, কথা ক4, কথা কও ৷ ( ১৩০৯ ? ) —উৎসর্গ। মরণ-দোলা চিরকাল এ কী লীলা গো— অনন্ত কলরোল । অশ্রুত কোন গানের ছন্দে অদ্ভূত এই দোল । দুলিছ গো, দোলা দিতেছ। পলকে আলোকে তুলিছ, পলকে আঁধারে টানিয়া নিতেছ। সমুখে যখন আসি, তখন পুলকে হাসি, পশ্চাতে যবে ফিরে যায় দোলা ভয়ে আঁখিজলে ভাসি ।