পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\Φ oly- চয়নিক। দৃষ্টি দিয়ে বারে বারে স্নান করতে পারিস তারে, ছিড়তে পারিস দলগুলি তার ধুলায় পারিস লোটাতে, তোদের বিষম গণ্ডগোলে যদিই বা সে মুখটি খোলে, ধরবে না রঙ—পারবে না তার গন্ধটুকু ছোটাতে । তোর কেউ পারবি নে গো পারবি নে ফুল ফোটাতে । যে পারে সে আপনি পারে পারে সে ফুল ফোটাতে । সে শুধু চায় নয়ন মেলে দুটি চোখের কিরণ ফেলে, অমনি যেন পূর্ণ প্রাণের মন্ত্র লাগে বোটাতে । যে পারে সে আপনি পারে পারে সে ফুল ফোটাতে ॥ নিঃশ্বাসে তার নিমেষেতে ফুল যেন চায় উড়ে যেতে, পাতার পাখা মেলে দিয়ে হাওয়ায় থাকে লোটাতে । রঙ-যে ফুটে ওঠে কত প্রাণের ব্যাকুলতার মতো, যেন কারে আনতে ডেকে গন্ধ থাকে ছোটাতে । যে পারে সে আপনি পারে, পারে সে ফুল ফোটাতে ॥ ( ১৩১২ ? ) —খেয়া “সব-পেয়েছি”র দেশ সব-পেয়েছির দেশে কারো নাই রে কোঠাবাড়ি, দুয়ার খোলা পড়ে আছে, কোথায় গেল দ্বারী। অশ্বশালায় অশ্ব কোথায় হস্তিশালায় হাতি, স্ফটিকীপে গন্ধতৈলে জালায় না কেউ বাতি ।